৭১ কেজি প্লাস্টিক খাওয়া গরুটি অবশেষে মারা গেল !

ভারতের ফরিদাবাদে সড়ক দু’র্ঘটনায় আ’হ’ত একটি গরুর অ’স্ত্রোপ’চার করে অবাক হয়েছিলেন সবাই। ২১ ফেব্রুয়ারি প্রায় চার ঘণ্টার অ’স্ত্রোপ’চার শেষে এটির পেট থেকে ৭১ কেজি প্লা’স্টিক, পে’রে’ক, কা’চের টু’করা এবং

জঞ্জাল বের করেন চিকিৎসকরা। পশুটির অ’স্ত্রোপ’চার সফল হলেও আ’শঙ্কামুক্ত ছিল না অ’স্ত্রোপচা’রের পর চিকিৎসক ডা. আতুল মাওরিয়া বলেছিলেন, পরবর্তী ১০ দিন তার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তার আগে কিছুই বলা যাবে না বলে জানিয়েছিলেন

তিনি। তবে, সব শঙ্কা শেষ করে গরু ও তার বাচ্চা মা’রা গেছে। এনডিটিভিরর খবরে বলা হয়েছে, পশুটিকে বাঁচানোর সব চেষ্টাই করা হয়েছিল। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। এর আগে সড়ক দু’র্ঘট’নায় আ’হ’ত হওয়া গরুটি ফরিদাবাদের এনআইপি-৫ থেকে উ’দ্ধার করা হয়েছিল। পরে দেবাশ্রী প্রাণী হাসাপাতালে

নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসকরা দেখতে পান, গরুটি নিজের পে’টেই ক্রমাগত লা’থি মা’রছে। এতে তাদের মনে হয়, দু’র্ঘটনায় আ’হ’ত হওয়া ছাড়াও এটির শরীরে আলাদা য’ন্ত্রণা আছে। এরপর অ’স্ত্রোপ’চারে বেরিয়া আসে প্লাস্টিক, সুই, কয়েন, গ্লাসের টুকরো, স্ক্রু ও বিভিন্ন ধরনের পিন। শহরে ঘাস

খাওয়ার সময় এগুলো তার পেটে চলে যায় বলে ধারণা করা হয়। ভারতে প্লাস্টিকের ওপর নি’ষেধাজ্ঞা জা’রি করা হয়েছে। কিন্তু তার পরও প্লা’স্টিকের যথেচ্ছ ব্যবহার কমেনি। ফলে সামুদ্রিক জীব থেকে রাস্তার পশুরাও এর শি’কার হচ্ছে। প্রাণহানি ঘটছে। এ নিয়ে সরব হয়েছেন পরিবেশবিদ ও পশুবিদরাও। প্লা’স্টিক

খেয়ে প্রতি বছর কত গরু মা’রা যায় ভারতে, তার সরকারি হিসাব না থাকলেও এক পশুকল্যাণ সংস্থার হিসাব অনুযায়ী, শুধু উত্তরপ্রদেশের লখনৌতেই এক হাজার গরুর মৃ’ত্যু হয় প্লা’স্টিক খেয়ে। গোটা ভারতে যখন গোরক্ষা নিয়ে আওয়াজ তুলছে গেরুয়া শিবির এবং হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলো, গরুদের সুরক্ষা নিয়ে যখন মোদি সরকার বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ করছে, প্লা’স্টিকের কারণে গরু মৃ’ত্যুর ঘটনায় তাদের সুরক্ষাবিধি নিয়েই প্রশ্ন উঠছে।

About Gazi Mamun

Check Also

ডাকা’তের আ’স্তানায় মিললো পুলি’শ-বি’জিবির ১৩ সে’ট পো’শাক

অপ’রাধ নি’য়ন্ত্রণে আইন-শৃঙ্খ’লা বা’হিনী যতই ক’ঠোর হচ্ছে ততই কৌশলী হয়ে নিজেদের অপ’কর্ম চালা’চ্ছে টেকনাফ সীমা’ন্তের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *