মামুনুল হক আমার বাড়িতে এলে নিজেকে ধন্য মনে করব: নিক্সন চৌধুরী

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক ও তার স’ঙ্গীদের নিজ বাড়িতে দাওয়াত করেছেন ফরিদপুরের আলোচিত সংসদ সদস্য মজিবর রহমান চৌধুরীনিক্সন। তিনি বলেছেন, মামুনুল হকের মতো একজন মাওলানা যিনি

ইসলামের দাওয়াত দেন তিনি তার (নিক্সন) বাড়িতে গেলে নিজেকে ধন্য মনে করবেন। সোমবার বিকালে ফরিদুপুরের ঘারুয়া ইউনিয়নের ঘারুয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মাঠে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তার এই বক্তব্যর ভিডিও ইতোমধ্যে ইউটিউবে ছড়িয়ে পড়েছে। যেটি নিয়ে বেশ

আলোচনা হচ্ছে। ফরিদপুর-৪ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য এ সংসদ সদস্য বক্তৃতায় বলেন, হেফাজতের নেতা মাওলানা মামুনুলকে দাওয়াত করলাম, আপনি যত মাওলানাদের স’ঙ্গে নিয়ে আসতে পারেন; আসেন। আমি খাওয়াতে প্রস্তুত আছি। মামুনুল হক ফরিদপুর এসে বলেছেন- আমি নিক্সন চৌধুরীর বাড়িতে দাওয়াত খাব, আমা’র স’ঙ্গে তার (নিক্সন চৌধুরী)

কোনো বিরোধ নাই। যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য করায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে নিক্সন চৌধুরী বলেন, আপনি আমা’র প্রতি আস্থা রেখে সারাদেশে যুবলীগকে সংগঠিত করার যে দায়িত্ব আমায় দিয়েছেন, ইনশাল্লাহ টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া, রূপসা থেকে পাথরিয়া সর্বত্র যুবলীগকে আদর্শের সংগঠনে পরিণত

করব। তিনি বলেন, সারা বাংলাদেশের ব’ঙ্গবন্ধুর আদর্শের সংগঠন হবে ভা’ঙ্গায় এবং যুবলীগের ঘাটি হবে ফরিদপুরের ভা’ঙ্গায়। আমরা সারা বাংলাদেশের ব’ঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করি। তিনি আরও বলেন, আমি গত এক মাসে ৫৪ কোটি টাকার উন্নয়নের কাজ শুধু ঘারুয়া ইউনিয়নে করেছি। যা সারা দেশের কোনো ইউনিয়নে এত বড় উন্নয়ন হয় নাই। আমি তিন থানায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছি। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ঘারুয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান

জনাব শফিউদ্দিন মোল্লার সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন- উপজে’লা পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম হাবিবুর রহমান, সাবেক উপজে’লা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন, উপজে’লা আওয়ামী লীগের সভাপতি হেদায়েত উল্লাহ সাকলাইন, সাধারণ সম্পাদক ফাইজুর রহমান ও সাংগঠনিক সম্পাদক সোবাহান মুন্সী, ভা’ঙ্গা বাজার বনিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর মুন্সী, জে’লা পরিষদের সদস্য শেখ শাহিন, আওয়ামী লীগ নেতা এ্যাপোলো নওরোজ, যুবলীগ নেতা লাভলু মুন্সী, নিরু খলিফা, মতিয়ার রহমান মতি ও বিভিন্ন এলাকার চেয়ারম্যানরা।

About Gazi Mamun

Check Also

২০০ টাকা চাদা না দিলে রিকশা নিয়ে যাবে পুলিশ!

পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে চা”দাবা’জির অভিযোগ বেড়েই চলছে। পরিবহন সেক্টর,ফুটপাত, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন সেক্টরে চালাচ্ছে চাদাবাজি। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *