স্বাস্থ্যসুরক্ষায় পবিত্র রওজা শরিফের কার্পেট ১০ দিন পর পর পরির্তন

করোনা মহামারিরোধে সতর্কতামূলক সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে পরিচালিত হচ্ছে মসজিদুল হারাম ও মসজিদে নববি। গত তিন মাসে মসজিদে নববির রওজা শরিফের কার্পেট ও বাবুস সালাম সংলগ্ন প্রাঙ্গণ জীবাণুমুক্ত করতে

২৩ হাজার ৩৮৩ লিটার পরিবেশবান্ধব ডিটারজেন্টস ব্যবহার করা হয়েছে। সৌদির রাষ্ট্রায়ত্ত্ব বার্তা সংস্থা এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে। মহামারিরোধে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে প্রতি ১০ দিন পর পর পবিত্র রওজা শরিফের কার্পেট পরিবর্তন করা হয়।

এছাড়াও করোনা মহামারিরোধে শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে রওজা শরিফ ও আস সালাম গেইটের চলাচলের পথে তিন শয়ের বেশি চিহ্ন স্থাপন করা হয়। পবিত্র মসজিদে নববিতে আগত

মুসল্লি ও দর্শনার্থীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে বিশেষ উদ্যাগ গ্রহণ করেছে মসজিদ পরিচালনা পরিষদ। জীবাণুমুক্তকরণের পাশাপাশি মসজিদের কার্পেটে সুগন্ধি লাগানো হয়। করোনাকালে পবিত্র

মসজিদুল হারামসহ মসজিদের নববিতে আগত সবার স্বাস্থ্যসুরক্ষা নিশ্চিত করতে নানা ধরনের পদক্ষেপগ্রহণ করা হয়। শারীরিক দূরত্ব, হাত ধৌত করা, নিয়মতি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন

অভিযান পরিচালনাসহ সব ধরনের সতর্কতামূলক সব পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

সূত্র : আরব নিউজ

About Gazi Mamun

Check Also

ওমরের (রা.) কথায় নাজিল হয়েছে যে ৫ আয়াত

ইসলামের দ্বিতীয় খলিফা হজরত ওমর (রা.) সম্পর্কে রাসুল (সা.) বলেছেন, ‘আমার পরে কেউ যদি নবী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *