এই পৃথিবীতে আবার জন্মালে ‘কোরআনে হাফেজ’ হতে চাই: তাসকিন

সাধারণ মানুষের মতো ক্রিকেটারদের জীবনও রক্ত-মাংসে গড়া। একজন মানুষ হিসেবে তাদের শখ, পছন্দ-অপছন্দ ছিলো শৈশবে। আট-দশটা বাঙালি কিশোরের মতো বেড়ে উঠেছে দুরন্তপনায়। এই যেমন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার

তাসকিন আহমেদ। ক্রিকেটের বাহিরে নানান রঙের গল্প আছে এই পেসারের। “যদি তিনি আবার এই পৃথিবীতে জন্মাতেন তাহলে খেলার পাশাপাশি কোরআনে হাফেজ হতেন”। নিম্নে স্পোর্টসজোন পাঠকদের জন্যে তাসকিনের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের বাহিরের গল্প

তুলে ধরা হলো- স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে তাসকিন আহমেদ: কিং খালেদ ইনস্টিটিউট, স্টাম্পফোর্ড ইউনিভার্সিটি, আমেরিকান ইউনিভার্সিটি, ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি (হাসি), এই দুটিতেই আছি। গ্র্যাজুয়েশন কোনটা থেকে কমপ্লিট করব এখনো শিওর না। অন্যটাতেও ভর্তি হতে পারি। সবচেয়ে দুঃখের দিন

কোনদিন? তাসকিন আহমেদ: যেদিন ১৯ বিশ্বকাপে (২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপ) শুনেছি আমি দলে নেই। এক সপ্তাহের জন্য রাজা হলে কী করবেন? তাসকিন আহমেদ : এক সপ্তাহের জন্য রাজা হলে? দুনিয়ার সব দু’র্নীতি উঠায়ে দিতাম আর গরিব থাকত না ওই অবস্থা করতাম মানে সাধ্যমতো। বিপদে পড়লে সবার

প্রথমে কাকে ফোন দেবেন? তাসকিন আহমেদ : বাবাকে।
কোন ক্রিকেটার এবং ফুটবলার কে পছন্দ করেন? তাসকিন আহমেদ : পছন্দের ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা। ফুটবলার সিআরসেভেন। বাংলাদেশ জাতীয় দলে বন্ধু ক্রিকেটার কে? তাসকিন আহমেদ : সৌম্য, মোসাদ্দেক, এনামুল বিজয়। অটোগ্রাফ না সেলফি দেওয়া সহজ? তাসকিন আহমেদ :

সেলফিটাই ইজি আসলে। অটোগ্রাফের ব্যাপারটা হলো অনেক সময় সবাইকে দেওয়া যায় না। হাতও ব্যথা হয়। সেলফিটাই ইজি এখন।
নিজের সবচেয়ে বড় গুণ, দোষ? তাসকিন আহমেদ : একটা গুণ যদি বলা হয়, আমি মানুষকে দ্রুত ক্ষমা করতে পারি। রাগ করে থাকতে পারি না বেশিক্ষণ। দোষ যদি বলা হয়, মানুষের কথাগুলা গায়ে লাগে, কয়েক দিন ধরে মাথায় থেকে যায়। আজকের এই

অবস্থানে আসার পেছনে কার অবদান সবচেয়ে বেশি? তাসকিন আহমেদ : আমার বাবার অনেক অবদান। সেলিব্রিটি লাইফ কতটা উপভোগ করেন? তাসকিন আহমেদ : এটা আলহামদুলিল্লাহ। এটা একটা বিশাল বড় পাওয়া। অনেক টাকা থাকলেও কিন্তু এটা অনেকে পায় না।

About Gazi Mamun

Check Also

১০ দল নয়, ১৪ দল নিয়ে হবে ওয়ানডে বিশ্বকাপ

ফুটবল বিশ্বকাপে দলের সংখ্যা বাড়িয়ে ফিফা যেখানে বিশ্বায়নের পথে হাঁটছে, সেখানে উল্টো চিত্র ‘ভদ্রলোকের খেলা’ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *