হেফাজত ও জামায়াতকে নিষিদ্ধের দাবি ওলামা লীগের

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরোধিতা করতে গিয়ে হরতাল, সহিংসতা, পুলিশের ওপর আঘাত ও জাতীয় সম্পদ নষ্টের দায়ে অনতিবিলম্বে হেফাজতে ইসলাম ও জামায়াতে ইসলামকে নিষিদ্ধ করাসহ পাঁচ দফা দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ

আওয়ামী ওলামা লীগ। শনিবার (০৩ এপ্রিল) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ ও সমমনা ১৩ দলের মানববন্ধনে এ দাবি জানানো হয় তাদের অন্য দাবিগুলো হচ্ছে— ভারতে পবিত্র কুরআন শরীফের আয়াতের বিরুদ্ধে করা

রিটের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে জোরালো পদক্ষেপ নিতে হবে; করোনার নামে অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের পাঁয়তারা থেকে জনগণকে হেফাজত করতে হবে ও বিএনপির লকডাউনের ফাঁদে পা দেওয়া যাবে না; মসজিদে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক ও রোজা

অবস্থায় টিকা জায়েজ এমন ফতেয়া অনতিবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে এবং মুজিব শতবর্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ১২ একর জায়গার ওপর ১৫০তলা মসজিদ তৈরি করতে হবে। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ইসলামের দৃষ্টিতে হরতাল করা হারাম। আর হারামকে

হালাল মনে করে ইসলামী আন্দোলন বলে প্রচার করলে তারা মুরতাদ হয়ে যায়। শরীয়তের দৃষ্টিতে হেফাজতের মাওলানারা সবাই মুরতাদ হয়েছেন। প্রকাশ্যে তওবা না করা পর্যন্ত তাদের পেছনে নামাজ হবে না। এমনকি তারাবিসহ ঈদের নামাজ কোনোটাই হবে

না। তারা মুসলমান বলে গণ্য হবেন না। গণমাধ্যমে প্রকাশিত হচ্ছে ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক অনন্য পর্যায়ে। সেক্ষেত্রে বাংলাদেশ সরকারের যথেষ্ট সুযোগ ও শক্তি রয়েছে ইসলামের ওপর আঘাতকারী ভারতের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার। এসময় বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামালীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি

আলহাজ মাওলানা মো. আখতার হোসাইন বোখারী মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন। এছাড়া সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মো. আবুল হাসান শেখ শরীয়তপুরী, সম্মিলিত ইসলামী গবেষণা পরিষদের সভাপতি আলহাজ হাফেজ মুফতী মাওলানা মো. আব্দুর সাত্তার, আওয়ামী ওলামা লীগের সহসভাপতি হাফেজ মাওলানা চৌধুরী,

সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুল জলিল, সহ দপ্তর সম্পাদক মাওলানা মুহম্মদ আব্দুস সবুর মিয়াসহ অন্যান্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

About Gazi Mamun

Check Also

৪০ লাখ টাকা ঋণ নিয়ে গাড়ি কিনলেন ব্যারিস্টার সুমন, বললেন ‘ঋণ করে ঘি খাওয়া’

জীবন তো একটাই, বার বার আসবে না। করোনায় অনেক কোটিপতি চলে গেছেন সঙ্গে কিছুই নিতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *