লকডাউনে মার্কেট খোলা রাখার দাবিতে রাজধানীতে ব্যবসায়ীদের বিক্ষোভ

কাল সোমবার থেকে সাত দিন মার্কেট–শপিং মল বন্ধের প্রতিবাদে নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীরা সমাবেশ করছেন। মার্কেটের সামনে অবস্থান নিয়ে সরকারের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানাচ্ছেন তারা। নিউমার্কেট থানার উপপরিদর্শক (এসআই)

তবিবর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে আগামীকাল সোমবার সকাল ৬টা থেকে ১১ এপ্রিল রাত পর্যন্ত চলাচল ও কাজে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সরকার। এ সময় শুধু জরুরি সেবা ছাড়া প্রায় সবকিছু বন্ধ থাকবে।

আজ রোববার সরকারের এক প্রজ্ঞাপনে এ কথা জানানো হয়। নিউমার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি দেওয়ান আমিনুল ইসলাম বলেন, করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে লকডাউন দিলে শতভাগ লকডাউন দিতে হবে। কোনো কোনো খাত ছাড় দিয়ে কোনো

কোনোটির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করাটা অন্যায়। ব্যবসায়ীরা দোকানপাট খোলা রাখতে পারলে নিজেদের খাবারদাবারের সংস্থান হবে, কর্মচারীরা বেতন পাবেন। সারা বছর ব্যবসায়ীরা এই সময়ের দিকে তাকিয়ে থাকেন। ঈদের সময় ক্ষয়ক্ষতি পুষিয়ে নেন। তিন

ধাপে ব্যবসা ভেদে এ সময় কেনাবেচা হয়। রোজার আগের ১৫ দিন, রোজার প্রথম ১৫ দিন ও শেষ ১৫ দিন। এ সময়ে এসে দোকানপাট বন্ধ হওয়া মানে পথে বসে যাওয়া। এই বিক্ষোভে নিউমার্কেট, চাঁদনীচক, গাউছিয়া, চন্দ্রিমা, নীলক্ষেতসহ

আশপাশের আরও বেশ কিছু মার্কেটের ব্যবসায়ীরা অংশ নিয়েছেন। একই দাবিতে বসুন্ধরা শপিং মলের ব্যবসায়ী ও কর্মচারীরা বিকেল চারটার দিকে মলের সামনের সড়কে বিক্ষোভ–মিছিল করেছে।

About Gazi Mamun

Check Also

লকডাউনে কারখানা খোলা রাখতে চান পোশাক ব্যবসায়ীরা

কঠোর লকডাউন আসছে ১৪ এপ্রিল থেকে। জরুরি সেবা ছাড়া বাকি সবই বন্ধ থাকবে এ সময়। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *