ক্ষেতের ধান খাওয়ায় ৩৩টি বাবুই ছানা পু’ড়িয়ে মা’রল জমির মালিক

ঝালকাঠির নলছিটিতে ক্ষেতের ধান খাওয়ায় প্রায় ৩৩টি বাবুই পাখির ছানাকে পু’ড়িয়ে মা’রার অভিযোগ উঠেছে জমির মালিকের বি’রুদ্ধে। শুক্রবার দুপুরে উপজে’লার ভৈরবপাশা ইউনিয়নের ঈশ্বরকাঠি গ্রামে এ ঘ’টনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজে’লার ভৈরবপাশা ইউনিয়নের ঈশ্বরকাঠি গ্রামের জালাল সিকদারের জমির ধান খাওয়ায় তিনি ওই এলাকার সিদ্দিক মার্কে’টের সামনে থাকা তাল গাছে বাবুই পাখির বাসায় বাঁশের মাথায় কাপড় পেঁ’চিয়ে আ’গুন জ্বা’লিয়ে

পু’ড়িয়ে মে’রেছে বাসার ভে’তরে থাকা প্রায় ৩৩টি বাবুই ছানাকে।
স্থানীয় জুলহাস মল্লিক বলেন, নিষ্ঠুর এই ঘৃণ্য কাজ একজন মানুষ করতে পারে তা ভাবতেই অবাক লাগে। বাবুই পাখিরা নাকি তার জমির ধান খেয়ে ফে’লে তাই তাদের এভাবে পু’ড়িয়ে মা’রা হলো।এলাকার পাখি প্রেমী অভিজিৎ বলেন, শনিবার ঝালকাঠি

বনবিভাগকে জানানো হয়েছে। এ ঘ’টনায় যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান এলাকাবাসী।এ ব্যাপারে ঝালকাঠি সদর উপজে’লার বন কর্মকর্তা কার্তিক চন্দ্র মন্ডল বলেন, ‘মৌখিক অভিযোগ পেয়েছি, এটা যদিও খুলনা বন ও বন্যপ্রা’ণী বিভাগের আওতায়। আমাদের ঝালকাঠি অফিস হলো সামাজিক বন

বিভাগের। তবুও আমি ঘ’টনার ব্যাপারে খোঁজখবর নিবো।’
‘শি’শুবক্তা’ রফিকুলকে কাশিমপুর কারাগারে স্থা’নান্তর
‘শি’শুবক্তা’ রফিকুল ই’স’লা’মকে গাজীপুর জে’লা করাগার থেকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এ পাঠানো হয়েছে। শনিবার (১০ এপ্রিল) সকাল সোয়া ৯টায় রেব-পু’লিশের কড়া প্রহরায় তাকে স্থা’নান্তর করা হয়।গাজীপুর জে’লা কারাগারের সুপার

বজলুর রশিদ আখন্দ বিষিয়টি নিশ্চিত করেছেন। জানা যায়, শনিবার সকাল সোয়া ৯টায় রফিকুল ই’স’লা’মকে জে’লা কারাগার থেকে কাশিমপুর কারাগারে পাঠানো হয়। সকাল ১০টায় তিনি কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পৌঁছান বলে কারা সূত্রে জানা গেছে। উল্লেখ্য, রাষ্ট্রবিরোধী, উস্কানিমূলক ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অ’ভিযোগে রফিকুল ই’স’লা’মের বি’রু’দ্ধে বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) রেব বাদী হয়ে ডিজিটাল

নিরাপত্তা আইনে গাজীপুরের গাছা থা’নায় মা’ম’লা করা হয়। পরে ঢাকায় তার নামে আরও একটি মা’ম’লা করা হয়।এর আগের দিন বুধবার (৭ এপ্রিল) ভোরে রফিকুল ই’স’লা’মের গ্রামের বাড়ি নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজে’লার লেটিরকান্দা থেকে তাকে আ’ট’ক করে রেব। গাজীপুর মেট্টোপলিটন পু’লিশের উপ-পু’লিশ কমিশনার মোহাম্ম’দ ইলতুৎমিশ বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে রেব-১ ডিএডি মোহাম্ম’দ খালেক বাদী হয়ে গাছা থা’নায় রফিকুল ই’স’লা’মের বি’রু’দ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে

মা’ম’লা করেন। পরে এই মা’ম’লায় তাকে গ্রে’প্তা’র দেখানো হয়। বৃহস্পতিবার সকালে তাকে গাজীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. শরিফুল ই’স’লা’মের আ’দা’লতে হাজির করা হলে আ’দা’লত শুনানি শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

About Gazi Mamun

Check Also

চোখের পানি সম্বল করে খালি হাতে বাড়ি ফিরছেন ভাতাভোগিরা

৯০ বছর বয়সী স্বামীহারা ইঙ্গুল বড়-য়ার দুই ছেলে। ছেলেরা খাবার না দেয়ায় তাকে প্রতিবেশিদের বাড়ি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *