পুলিশের কাছে তিন বিয়ের কথা স্বীকার করলো মামুনুলের

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মামুনুল হককে গ্রে’ফতার করেছে পুলিশ। রাজধানীর মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া মাদরাসা থেকে রোববার বেলা ১২টার দিকে তাকে

গ্রে’ফতার করা হয়। সেখান থেকে মামুনুলকে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনারের কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সম্পর্কিত খবর মামুনুল হকের বিরুদ্ধে

ঢাকাতেই ১৭ মামলা, রিমান্ড চাইবে পুলিশ থানায় ইফতার করলেন মামুনুল হক গ্রে’প্তারের সময় হাতকড়া পরানো হয়নি মামুনুলকে তেজগাঁও থানা কমপ্লেক্সে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তিন বিয়ের কথা স্বীকার করছেন মামুনুল হক। তিনি জানিয়েছেন,

প্রথম বিয়ের পর যে দুই নারীর কথা আলোচনায় এসেছে তারা দু’জনই তার স্ত্রী। এসব বিয়ে তিনি সামাজিকভাবে গোপন রেখেছেন। ডিসি হারুন আর রশিদ বলেন, মোহাম্মদপুর থানার মামলায় আজ মামনুলকে আদালতে হাজির করে সাত দিনের

রিমান্ড আবেদন করা হবে।’ আরো কয়েকটি মামলায় গ্রে’ফতার দেখিয়ে তার রিমান্ড চাওয়া হবে বলে জানিয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ৩ এপ্রিল সোনারগাঁওয়ের রয়্যাল রিসোর্টে ধরা পড়ার পর থেকেই মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া

মাদ্রাসায় অবস্থান করছিলেন মামুনুল হক। ঘটনার পর থেকেই পুলিশ তাকে নজরদারির মধ্যে রেখেছিল। এ ঘটনার পর হেফাজতের বেশ কয়েকজন নেতাকে গ্রে’ফতার করা হয়।

হেফাজত নেতার বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। মামুনুল হকের বিরুদ্ধে ২০১৩ সালের একটি মামলায় গ্রে’ফতারি পরোয়ানা জারি রয়েছে বলে জানান ডিএমপি কমিশনার।

About Gazi Mamun

Check Also

৩ নারীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক ছিল হেফাজত নেতা জাকারিয়ার: পুলিশ

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সাবেক প্রচার সম্পাদক জাকারিয়া নোমান ফয়েজীরও বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *