ওরা শান্তির ধ’র্মকে অশান্তির কাজে ব্যবহার করছে হেফাজত

হাওরে বোরো ফসল কা’টার উৎসবে এসে কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক হেফাজতে ই’স’লা’মকে ‘ধ’র্মান্ধ অ’পশক্তি’ আখ্যা দিয়ে বলেছেন, এরা শান্তির ধ’র্ম ই’স’লা’মকে

অশান্তির কাজে ব্যবহার করছে। নিজেদের ভোগবিলাসে ব্যবহার করছে। এরা ধার্মিক নয় ধ’র্ম ব্যবসায়ী। এই জ’ঙ্গী ধ’র্মান্ধদের দেশ থেকে উৎখাত করতে হবে। এদের মূলোৎপাটন করতে হবে।আজ রবিবার দুপুরে কি’শোরগঞ্জের হাওর অধুষ্যিত উপজে’লা

মিঠামইনে ধান কা’টা উৎসব উদ্বোধন করার সময় প্রধান অ’তিথি বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। ড. রাজ্জাক আরো বলেন, এবার সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে ১৫ লাখ টন ধান কিনবে সরকার। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি আরো জানান,

প্রান্তিক চাষিদের কাছ থেকেই এ ধান কেনা হবে। তবে প্রকৃত কৃষক যেন সে সুবিধা পায় এবং এক্ষেত্রে কোনো রাজনৈতিক প্রভাব না পড়ে সেজন্য কৃষক নির্ধারণ করা হবে লটারির মাধ্যমে। হাওরের কৃষির নিরাপত্তার বিষয়ে কৃষিমন্ত্রী বলেন, হাওরের কৃষি

নিয়ে নিয়ে আম’রা সবসময় দুশ্চিন্তায় থাকি। কারণ এ এলাকায় এ সময় প্রায়ই আগাম ব’ন্যায় ফসল নষ্ট হয়। এতে দেশের খাদ্য নিরাপত্তায় মা’রাত্মক প্রভাব পড়ে। কাজেই কি করে নিরাপদে ধানগুলো কা’টা যায়- এ বিষয়ে নানা পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। ধান কা’টা উৎসবের পূর্বে মন্ত্রী এক সমাবেশে বক্তৃতা করেন।

এ সসময় অন্যান্যের মধ্যে কি’শোরগঞ্জ-৪ আসনের এমপি রেজওয়ান আহম্ম’দ তৌফিক, কি’শোরগঞ্জ-২ আসনের এমপি, সাবেক আইজিপি নূর মোহাম্ম’দ, কৃষি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মেসবাহুল ই’স’লা’ম, বিএডিসির চেয়ারম্যান ড. অমিতাভ সরকার, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক

মো. আসাদউল্লাহ, ব্রি-র মহাপরিচালক ড. শাহ’জাহান কবীর, বারির মহাপরিচালক ড. নাজিরুল ই’স’লা’ম, পু’লিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ, মিঠামইন উপজে’লা চেয়ারম্যান আছিয়া আলম, জে’লা পরিষদের চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান,

কি’শোরগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর উপপরিচালক মো. ছাইফুল আলম, কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সহ-সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন সুইট প্রমুখ।

About Gazi Mamun

Check Also

ঈদের ছুটি ৩ দিন, চাকরিজীবীদের কর্মস্থলে থাকার নির্দেশনা

Islamic world করোনা সংক্রমণ রোধে কয়েকটি শর্ত শিথিল করে ৬ থেকে ১৬ মে পর্যন্ত লকডাউন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *