পবিত্র কাবা শরিফের তালা-চাবির ইতিহাস ও সংরক্ষণ

কাবা শরিফের তালা-চাবির ইতিহাস ও সংরক্ষণ
সৌদি আরবের পবিত্র নগরী মক্কায় অবস্থিত মহান আল্লাহর ঘর পবিত্র কাবা শরিফ। কাবা শরিফে বহুকাল ধরেই তালা-চাবির ব্যবহার হয়ে আসছে। তবে কবে কখন

এ তালা-চাবির ব্যবহার শুরু হয়েছে তার সুস্পষ্ট কোনো সাল তারিখ জানা না থাকলেও ৫৮টি চাবির নিবন্ধন রয়েছে। দীর্ঘকাল ধরে কাবা শরিফে বিভিন্ন ধরনের বিশেষ তালা ও চাবির ব্যবহার হয়ে আসছে। অনেক দিন পরপর পরিবর্তন করা এসব তালা

কিংবা চাবি বিশ্বের বিভিন্ন দেশের জাতীয় জাদুঘরে সংরক্ষিত থাকার তথ্য পাওয়া যায়। এখন পর্যন্ত কাবা শরিফে ৫৮টি তালা-চাবির নিবন্ধনের তথ্য পাওয়া যায়। যার মধ্যে তুরস্কের সাবেক রাজধানী ও প্রাচীন শহর ইস্তাম্বুলে তোপকাপি জাদুঘরেই রয়েছে ৫৪টি চাবি। ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের একটি জাদুঘরে রয়েছে

২টি চাবি এবং মিসরের রাজধানী কায়রোর ইসলামি আর্ট জাদুঘরে রয়েছে ১টি চাবি। তবে একটা আশ্চর্যজনক বিষয় হলো, প্রাক ইসলামি যুগ থেকে এখন পর্যন্ত পবিত্র কাবা শরিফের চাবির দায়িত্ব একটি পরিবারের কাছেই রয়েছে। যা এখনো বর্তমান। এ সম্মানিত পরিবারটি হলো মক্কার বুন তালহা গোত্র। এ গোত্রের লোকেরা গত ১৫০০ বছর ধরে এ দায়িত্ব পালন করে আসছেন। বনু তালহা

গোত্রের সবচেয়ে মুরব্বি তথা বয়স্ক সদস্যরাই উত্তরাধিকার সূত্রে এ দায়িত্ব প্রাপ্ত হন এবং সম্মানের সঙ্গে আমৃত্যু এ দায়িত্ব পালন করে থাকেন। তবে ‘বনি শায়বাহ’ নামক এক আরবি গোত্রের কাছে কাবা ঘরের চাবি রক্ষণাবেক্ষণের তথ্যও পাওয়া যায়। যা এ গোত্রের সম্মানিত ব্যক্তিদের জিম্মায় থাকে। দেড় হাজার বছর পূর্বে প্রিয় নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এ পরিবারের কাছে

কাবা শরিফের তালা-চাবি রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব আরোপ করেছিলেন। কাবা শরিফের চাবি রাখার জন্য কিসওয়ার কাপড় দ্বারা তৈরি বিশেষ বক্স তৈরি করা হয়। যার মধ্যে রাখা হয় পবিত্র কাবা শরিফের চাবি। কাবা শরিফের তালা-চাবির ইতিহাস পর্যালোচনায় জানা যায়, আব্বাসীয় মামলুক ও অটোমান উসমানি খেলাফতের যুগে কাবা শরিফের মেরামত উপলক্ষ্যে অথবা

বিশেষ অনুষ্ঠান করে তালা-চাবি ব্যবহার করা হতো। প্রাচীন কালে কাবা শরিফের সর্বশেষ তালা-চাবি অটোমানের যুগের উসমানি খেলাফতের মাজলুম বাদশা আব্দুল হামিদের নির্দেশে ১৩০৯ হিজরিতে তৈরি করা হয়। যা সৌদি বাদশাহ আল সৌদের যুগ পর্যন্ত স্থায়ী হয়। আধুনিক সৌদি আরবের জনক বাদশাহ খালেদ ইবনে আব্দুল আজিজ আল সৌদি এ তালা ও চাবি পবির্তন করেন। তারপর ২০১২ সালেও পবির্তন করা হয় পবিত্র কাবা

শরিফের তালা এবং চাবি। যা এখনো বর্তমান। সারাবিশ্ব থেকে মুসলিম উম্মাহ হজ উপলক্ষ্যে বছরে একবার এবং ওমরা উপলক্ষ্যে বছরে প্রায় ১০ মাস পবিত্র কাবা শরিফ তাওয়াফ ও জিয়ারত করেন। এসব হজ-ওমরা ও জিয়ারতকারীদের অধিকাংশেরই জানা নেই পবিত্র কাবা শরিফের তালা-চাবির ইতিহাস।

তবে পবিত্র এ ঘরের চাবি তথসো হারায়নি। যদিও বহুকাল আগে এক ব্যক্তি চুরি করার চেষ্টা করে এবং সফল হয়। পরবর্তীতে সে চাবিও উদ্ধার করা হয়।

সূত্র জাগো নিউজ

About Gazi Mamun

Check Also

হযরত উসমান (রা.)-এর নামে হোটেল ও ব্যাংক অ্যাকাউন্ট

ইসলামের তৃতীয় খলিফা হযরত উসমান বিন আফফান (রা.)-এর নামে সৌদি ব্যাংকের একটি অ্যাকাউন্ট অদ্যবধি সচল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *