বিপদে পড়তে পারে ইসরাইল !

ইসরাইল সম্ভবত গাজা বা লেবাননে স্থল অভিযান পরিচালনা করবে না, যা তাদের জন্য ভুল খেলা হতে পারে। গাজায় ইসরাইলের শেষ স্থল আক্র’মণে আল কাস্সাম ব্রি’গে’ডের সাহসিকতায় তারা পিছু হটেছিল।

ফলে ইসরাইল এখন আর গ্রীষ্মকালে হিজবুল্লাহর সাথে লড়াইয়েরও ঝুঁকি নিতে চাইবে না। তদুপরি, সিরিয়া থেকে চালিত সাম্প্রতিক ক্ষেপণা’স্ত্র ইসরাইলের গভীরে প্রবেশ করেছে যা ইসরাইলের নিউক্লিয়ার প্লান্টের একেবারে কাছাকাছি পৌঁছে যায়। ইসরাইলের

‘আ’য়র’ন ডোম’ এটি বন্ধ করতে ব্যর্থ হয়। ইরান ও তুরস্ক উভয়ের কাছে আরো আধুনিক ক্ষেপণা’স্ত্র রয়েছে যা ইসরাইল কখনো থামাতে পারে না। ‘ছয় দিনের যুদ্ধের’ দিনগুলো সম্ভবত চলে গেছে। ইরান স্থল থেকে স্থল ও আকাশে এবং পানির

গভীরে ব্যবহারক্ষম দীর্ঘ পরিসরের ক্ষেপণা’স্ত্র তৈরি করেছে। তুরস্ককে সিরিয়ায় অবস্থিত তার সেনাবাহিনীকে এই ইস্যুতে জড়িত করার প্রয়োজন হবে না।
সৌদি আরব ও মিসরের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার উদ্যোগের মধ্যেই অনেক বার্তা রয়েছে। ইসরাইলি বিনিয়োগে ইথিওপিয়ায় নীল

নদের উৎসে বাঁধ দিয়ে পানি নিয়ন্ত্রণের উদ্যোগ মিসরের অর্থনীতির জন্য বাঁচা মরার প্রশ্ন। ইসরাইলের ইহুদিদের অনেকে বিশ্বাস করে, মুসা নবীর হারিয়ে যাওয়া সিন্ধুকটি ইথিওপিয়ায় পাওয়া যেতে পারে। ইসরাইলের অনেকে দেশটিতে ‘দ্বিতীয় ইহুদি রাষ্ট্র’

প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখে। ইথিওপিয়ায় নীল নদের উপর দেয়া ‘রেনেসাঁ বাঁধ’ চালুর উদ্যোগ ইসরাইলের বাইরে, তুরস্কের মতো বড় আঞ্চলিক শক্তির সাথে সমঝোতায় আসতে উৎসাহিত করেছে মিসরকে।
এটি মধ্যপ্রাচ্য এবং ভূমধ্যসাগর অঞ্চলের ভূ-রাজনৈতিক খেলাকে পাল্টে দিয়েছে। এর মধ্যে এরদোগানের সৌদি বাদশাহকে করা

ফোন কলটি বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। এই সময়টাতে সৌদি আরবে কাতারি আমির, তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর সফরও তাৎপর্যপূর্ণ। গাজায় ইসরাইলি আগ্রাসন নিয়ে এর মধ্যে এরদোগান ১৯ জন রাষ্ট্রপ্রধানের সাথে কথা বলেছেন।

তিনি খেলছেন কূটনীতির ময়দানে, আর ইরানের কাজ সম্ভবত প্রতিরোধ যুদ্ধকে শক্তিমান করার ক্ষেত্রে। ইসরাইলের খুব গভীরে ইসলামী জিহাদের ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত নেতানিয়াহুর চোখের নিচে কালো আস্তরণ ফেলেছে। তিনি যুদ্ধ বন্ধ করার উদ্যোগ নিতে ওয়াশিংটনকে বার্তা দিয়েছেন।

About Gazi Mamun

Check Also

আফগানিস্তানে জুমার নামাজে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, নিহত বেড়ে ৩২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- আফগানিস্তানের কান্দাহার প্রদেশের একটি শিয়া মসজিদে জুমার নামাজের সময় ভয়াবহ বিস্ফোরণে ৩২ জন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *