‘ধুলোয় মিশে গেছে ইস’রায়েলের অহংকার’

অবশেষে যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয়েছে ইসরায়েল। একদিকে আন্তর্জাতিক চাপ, অন্যদিকে হামাসের মুহুর্মুহু আক্রমণ দেশটিকে যুদ্ধবিরতি মেনে নিতে একপ্রকার বাধ্য করেছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। গতকাল রাতে ইসরায়েলের

মন্ত্রিসভার বৈঠক থেকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এর মধ্য দিয়ে পরাক্রমশালী ইসরায়েলের অহংকার ধুলোয় মিশে গেছে বলে মনে করছে হামাস। আপাতদৃষ্টিতে ফিলিস্তিনে ক্ষয়ক্ষতি বেশি হলেও এই প্রথম হামাসের এমন প্রতিরোধের মুখে পড়লো ইসরায়েল। তার

প্রমাণ, যে দেশটি দিনকয়েক আগেও স্পষ্টভাবে যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে, তারাই এখন যুদ্ধবিরতিতে সম্মত। শুধু হামাস নয়, বিশ্লেষকরাও এটিকে অতি আত্মবিশ্বাসী আর অহংকারী ইসরায়েলের ‘পরাজয়’ হিসেবে দেখছেন। হামাসের বৈদেশিক

রাজনীতি বিষয়ক প্রধান খালেদ মিশাল বলেন, শক্তিশালী বিমান হামলায় এক চুলও পিছু হটেনি হামাস, প্রায় প্রত্যেকটা বিমান হামলার জবাবে রকেট ছোঁড়া হয়েছে। গাজা উপত্যকা আজ মুক্ত। আমি মনে করি, অসম্ভবকে সম্ভব করেছে ফিলিস্তিনি জনগণ।

ইসরায়েলের এই পরাজয়ের বিপরীতে আরও শক্তিশালী হবে হামাস। গত ১০ মে শুরু হওয়া এই একতরফা যুদ্ধে প্রায় ২৩০ জন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন। যার একটা বড় অংশ শিশু। এ অবস্থায় গত দুদিন থেকে যুদ্ধবিরতি কার্যকরে আন্তর্জাতিক চাপ

বাড়ছিল। গতকাল বৃহস্পতিবার (২০ মে) লেবাননের আল-মায়াদিন টেলিভিশন চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে হামাসের উপপ্রধান মুসা আবু মারজুক প্রথমে যুদ্ধবিরতির কথা জানান তার আগে গত বুধবার (১৯ মে) মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর প্রতি যুদ্ধবিরতরি আহ্বান জানান। অথচ জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে ইসরায়েল-বিরোধী নিন্দা প্রস্তাবে ভেটো দেয় আমেরিকা। এ ছাড়া কয়েকদিন আগেও বাইডেন বলেছেন, হামাসের রকেটের জবাবে আত্মরক্ষার অধিকার ইসরায়েলের রয়েছে।

About Gazi Mamun

Check Also

মুসলিম দেশের কাছে পাত্তা পেল না ইসরায়েল, হামাসের কৃতজ্ঞতা!

ইহুদিবাদী ইস’রায়ে’লের সঙ্গে স্বাভাবিক সম্পর্কের বিষয়টি অ’স্বীকার করেছে মালয়েশিয়া। বিষয়টিকে সাধুবাদ জানিয়েছে ফি’লিস্তিনের ইসলামী প্রতিরোধ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *