পায়ে হেটে হজ্জ পালনকারী একমাত্র বাংলাদেশী

সময়ের সাথে সাথে অনেক কিছু বদলায় সেটা পরিবেশ কিংবা পরিজন কিন্তু সময়ের সাথে ঘটে যাওয়া ঘটনার রেশ থেকে যায় বহুদিন। আজ থেকে ৪৯ বছর আগে

জীবনের সুবর্ণ অতীত আজও মনে রেখেছে দিনাজপুরের রামসাগরে অবস্থিত বায়তুল আকসা মসজিদের ইমাম হাজী মোঃ মহিউদ্দীন তিনি ১৯৬৮ সালে পায়ে হেঁটে বাংলাদেশ থেকে সৌদি

আরবে হজ্জ পালনের উদ্দেশ্যে রওনা দেন, যা বর্তমান সময়ে অকল্পনীয়।তিনি ১৯১৩ সালে জন্মগ্রহণ করেন। বর্তমানে তার বয়স ১০৩ বছর৷ বাংলদেশ থেকে ভারত, পাকিস্থান, ইরান, কাতার

হেঁটে অতঃপর সৌদি আরব পৌঁছেন। মক্কায় হজ্জ পালন শেষে মদীনা, নীল নদের দেশ মিশরে ফির-আউনের লাশ দেখার উদ্দেশ্যে রওনা দেন৷ মিশর রহস্য দেখার পর দীর্ঘ ১৮ মাস পর

হেঁটে হেঁটেই মাতৃভূমি বাংলাদেশে ফিরে আসেন৷ বয়সের ভারে নুইয়ে পড়েননি তিনি এখনও জীবিত ও সুস্থ আছেন৷ স্মৃতির পাতায় অকপটে বার বার সেই সোনালী

দিনগুলো ভেসে আছেন বলে জানান তিনি । এই বিষয়ে জানতে চাইলে বলেন ‘আমি সবদিক আল্লাহর উপর সন্তুষ্ট আছি’।

About Gazi Mamun

Check Also

ভাসমান সেই মসজিদে প্রথম জুমার নামাজ আদায়

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নের হাওলাদার বাড়ির পুরনো মসজিদটি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ায় খোলপেটুয়া নদীর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *