যখন দরকার তখন দেয়নি এখন খু’লে দেয়া হলো তি’স্তা’র নদীর ৪৪ গেট, ব’ন্যার আ’শঙ্কা

অ’বিরাম বৃষ্টি আর সীমান্তের ওপারে উজানের ঢল নেমে আ’সা’য় তিস্তা ন’দীর পানি হু হু করে বাড়ছে।পরিস্থিতি সা’মাল দিতে ইতোমধ্যে তিস্তা ব্যারেজের ৪৪টি গেট খুলে দেওয়া হ’য়ে’ছে।নদ-ন’দী’র পানি আকস্মিকভাবে

বৃদ্ধির ফলে চ’রা’ঞ্চলে পানি প্রবেশ করতে শুরু করেছে।বন্যার আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন তিস্তার ৬৩টি চরের মানুষ।রোববার (২০ জুন)সন্ধ্যা ৬টায় হা’তি’বা’ন্ধা উ’প’জেলার তিস্তা ব্যারাজের ডালিয়া পয়েন্টে পানিপ্রবাহ ৫২.৪৫সেন্টিমিটার যা বিপদসীমার

১৫ সেন্টিমিটার নিচে ছিল।স্বাভাবিক পানি প্র’বাহ’ ৫২.৬০ সে’ন্টি’মি’টা’র।জা’না গেছে,গত ১০ দিনে তি’স্তা’র ভাঙনে ৩০টি পরি’বারের বাড়িঘর নদীতে বি’লি’ন হয়েছে।আ’দি’ত’মা’রী উপজেলার মহিষখোঁচা

ই’উ’নি’য়’নে’র কুটিরপাড় এ’লা’কার বালুর বাঁধ,সদর উ’প’জে’লার গোকুণ্ডা,ইউনিয়নের ভাঙন বেড়েই চলছে। সে’খা’নে বস’বাসরত মানুষ আতঙ্কে দিন যাপন করছে।তিস্তার পানি বৃদ্ধি সম্পর্কে ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের

(পাউবো)নির্বাহী প্রকৌশলী(অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত) আব্দুল আল মামুন গণ’মা’ধ্যমকে বলেন,উজানের ঢল ও বৃষ্টির কা’রণে তিস্তা নদীতে হু হু করে পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে।এভাবে তিস্তার পানি বৃদ্ধি পেলে ব’ন্যা’র আশঙ্কা রয়েছে।রোববার সন্ধ্যায় তি’স্তা’র পানি বিপদসীমার ১৫ সে’ন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্র’বা’হি’ত হয়েছে।পাটগ্রামের দহগ্রাম;হাতি’বান্ধার

গ’ড্ডি’মা”রী,সি’ন্দুর্না,ডাউয়াবাড়ী; কালীগঞ্জ উপজেলার ভোটমারী, শৈইলমারী, নোহালী; আদিতমারী উপজেলার
মহিষখোচা,পলাশী;সদর উপজেলার খুনি’য়াগাছ,রাজপুর, গোকুণ্ডা,ই’উ’নি’য়’নের তিস্তা নদীর তীরবর্তী নিম্নাঞ্চলে পানি প্র’বে’শ করতে পারে যে কোনো স’ম’য়।

About Gazi Mamun

Check Also

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হলেন বাংলাদেশি ডা. তাসনিম জারা

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লিনিক্যাল সুপাইরভাইজার (আন্ডারগ্রাজুয়েট) হিসেবে যোগ দিয়েছেন বাংলাদেশের চিকিৎসক ডা. তাসনিম জারা গত সোমবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *