‘হীরা’র সন্ধানে মাটি খুঁড়ছেন অসংখ্য মানুষ

মাটি খুঁড়তে গিয়ে একটি অচেনা পাথর হাতে উঠে আসে এক রাখালের। উজ্জ্বল ও সাদা বর্ণের এই পাথরটিতে সূর্যের আলো পড়লে জ্যোতি ঠিকরে পড়ছে। অবিকল হীরার মতো।

কিন্তু এটি কীসের পাথর তা জানতেন না এই লোকটি। ঘটনাটি দক্ষিণ আফ্রিকার একটি গ্রামে। খালাথি নামের ওই গ্রামে পশুপালকের আবিষ্কারের কথা চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। এরপরই

ঘটে যায় অবাক কাণ্ড। ধনী হওয়ার লক্ষ্যে বিভিন্ন স্থান থেকে অসংখ্য মানুষ এখানে মাটি খুঁড়তে চলে আসেন। সঙ্গে করে খোঁড়ার যন্ত্রও নিয়ে আসেন। তাদের বিশ্বাস এই এলাকার মাটির

নীচে অসংখ্য হীরা রয়েছে। যদিও সেখানে মাটি খুঁড়ে কোয়ার্জ ছাড়া আর কিছুই পাওয়া যায়নি। খবর প্রকাশ করেছে আনন্দবাজার পত্রিকা অনলাইন। জানা গেছে, দক্ষিণ আফ্রিকার

খালাথি গ্রামে একটি বিস্তৃত ফাঁকা মাঠ রয়েছে। সেখানে সাধারণত মানুষের তেমন যাতায়াত নেই। এটি গৃহপালিত পশুদের চারণক্ষেত্র হিসেবেই ব্যবহার হয়ে আসছে। সম্প্রতি সেখান থেকেই মাটি খুঁড়তে

গিয়ে হীরার মতো উজ্জ্বল পাথরের খোঁজ পায় এক রাখাল।
হীরা খুঁজতে এসে অনেকেই দেখতে উজ্জল বিভিন্ন পাথর উদ্ধার করেছেন। কিন্তু সেগুলো হীরা কিনা তা এখনো বলা যাচ্ছে না।

মাটি খোঁড়ার কাজ শুরু করেছে একাধিক হীরা উত্তোলক সংস্থাও। দক্ষিণ আফ্রিকা সরকার সেখানে ভূতত্ত্ববিদদের একটি দলকেও পাঠিয়েছে।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা অনলাইন

About Gazi Mamun

Check Also

আফগানিস্তানে সক্রিয় ভূমিকা রাখতে পারে তুরস্ক: তালেবান

তুরস্ক তার সম্পদের সাহায্যে বিনিয়োগ, কিছু প্রকল্প বাস্তবায়নের পাশাপাশি আফগানিস্তানে সংস্কার ও পুনরুদ্ধারে সক্রিয় ভূমিকা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *