তালিমের সময় ঘুম; ২ ছাত্রের মাথা ফাটালেন মাদ্রাসা শিক্ষক

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলায় দুই ছাত্রের মাথা ফাটানোর অভিযোগ উঠেছে এক মাদ্রাসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে। উপজেলার কাইচাইল ইউনিয়নের সুতারকান্দা দারুস সালাম ইসলামিয়া মাদ্রাসায় এই ঘটনা ঘটে।

আহত দুই ছাত্র হলো, উপজেলার জিয়াকুলী গ্রামের বাদল মোল্লার ছেলে নিজাম (৯) ও জলফত জমাদ্দারের ছেলে আর্শিক (১০)। দুই জনই ওই মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের ছাত্র। জানা গেছে, আজ বুধবার (৩০ জুন) মাদ্রাসায় ফজরের নামাজের পর শিক্ষার্থীদের

নিয়ে তালিম চলছিল। এ সময় হেফজ বিভাগের ছাত্র নিজাম ও আর্শিক বসে বসে ঘুমচ্ছিল। মাদ্রাসার শিক্ষক হাফেজ রকিবুল ইসলাম উক্ত দুই ছাত্রকে দাঁড় করিয়ে একে অপরের মাথায় আঘাত করে এতে দুইজনের মাথা ফেটে রক্ত ঝরতে থাকে। পরে পাশের

পোড়াদিয়া বাজারে গ্রাম্য চিকিৎসকের নিকট এনে দুইজনের মাথায় সেলাই দিয়ে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। এ ঘটনার পর থেকে শিক্ষক হাফেজ রকিবুল ইসলাম পলাতক রয়েছেন। আহত ছাত্র নিজামের বাবা বাদল মোল্লা অভিযোগ করে বলেন, আমার ছেলে হেফজ বিভাগে পড়ে। শিশু ছেলে ফজরের নামাজ পড়ে মাদ্রাসায়

বসে তালিম শুনছিল। তখন সে ও আশিক নামে এক ছেলের ঘুমের ঝিম আসছিল। তাতেই হুজুর দুইজনের একে অপরের মাথায় টক্কর মারে। এতে দুইজনের মাথা ফেটে রক্ত বের হয়। আমার ছেলের মাথায় চারটি সেলাই করা হয়েছে। মাদ্রাসার মোহতামিম

(প্রিন্সিপাল) আবু বকর সিদ্দিক বলেন, আমি মাদ্রাসায় ছিলাম না। একটা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে গেছে। শিক্ষকের বিরুদ্ধে মাদ্রাসার কমিটির পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেতী প্রু বলেন, দুই শিক্ষার্থীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য

অভিভাবকদের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। আর অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

About Gazi Mamun

Check Also

১৮ মাস পর খুললো বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় আবাসিক হল

উৎসবমুখর পরিবেশে হলে প্রবেশ করেছে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় আবাসিক শিক্ষার্থীরা।সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনটি আবাসিক হল বঙ্গবন্ধু হল, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *