মাকে নিয়ে “স্ত্রীর সঙ্গে” সমস্যা হয় নুরু মিয়ার। এরপর বাড়ি ছাড়লেন! প্রায় ১৩ বছর ধরে মা গোলাপী বেগমকে নিয়ে ‘নৌকায় বসবাস’ করছেন তিনি…

ডামুড্যার জ’য়’ন্তী নদীতে নৌ’কায় ব’স’বা’স করা গোলাপী বেগমের ইচ্ছা পূরণ হয়েছে। পানি ছেড়ে ছেলেকে নিয়ে ডাঙায় ব’স’বা’সের সু’যো’গ হয়েছে তার। প্রধান’মন্ত্রী শেখ হাসিনার উ’প’হা’রের পাকা ঘরে

দুই-একদিনের মধ্যেই উঠবেন তিনি। রবিবার (২০ জুন) দুপুরে উপজে’লা নি’র্বা’হী কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দা’য়ি’ত্ব) আলমগীর হুসাইন তাকে নতুন ঘরের চাবি ও জমির দ’লি’ল বুঝিয়ে দেন আলমগীর হুসাইন জানান, ওনার (গোলাপীর) স’ম্প’র্কে আগে কিছু জানতাম না। বিভিন্ন

পত্রপত্রিকায় সংবাদ প্রচার হওয়ার পর জে’লা প্র’শা’স’ক স্যার ও আমাদের নজরে আসে। এরপর তাকে ব’য়’স্ক ভাতার কার্ড ও নগদ কিছু অর্থ দিয়েছি উপজে’লা প্র’শা’স’নের পক্ষ থেকে। আজ তাকে নতুন ঘরের চাবি ও জমির দ’লি’ল বুঝিয়ে দেওয়া

হলো। রঙের কাজ বাকি আছে, রঙের কাজ শেষ হলে দুই-একদিনের মধ্যেই তিনি ঘরে উঠতে পারবেন। ৯০ বছর বয়সী গোলাপী বেগমের বাড়ি শ’রী’য়’তপুরের ডামুড্যা উপজে’লার পূর্ব ডামুড্যা ই’উ’নি’য়’নে। তিনি ওই ই’উ’নি’য়’নের মৃত

মো. আশ্রাফ আলীর স্ত্রী। গত ১০ এপ্রিল তাকে নিয়ে ‘গোলাপী এখন নৌ’কায়’ শিরোনামে অ’ন’লা’ই’ন পো’র্টা’ল বাংলা ট্রিবিউনে নিউজ প্রকাশিত হয়। নিউজটি শ’রী’য়’তপুর জে’লা প্র’শা’স’ক পারভেজ হাসান ও সদ্য বিদায়ী ডামুড্যা উপজে’লা

নির্বাহী কর্মকর্তার নজরে আসে। পরে প্র’শা’স’নের উদ্যোগে তার বয়স্কভাতার কার্ডের ব্য’ব’স্থা করা হয়। নগদ অর্থও পেয়েছিলেন এবং তাকে প্র’তি’শ্রু’তি দেওয়া হয়েছিল শিগগিরই একটি পাকা ঘর উ’প’হা’র দেওয়া হবে। সেই প্র’তি’শ্রু’তি হিসেবেপাকা ঘর

ও জমির কা’গ’জ-পত্র এবং চাবি বুঝে পেয়েছেন তিনি।
জানা যায়, স্ত্রীর সঙ্গে ব’নি’ব’না না হওয়ায় প্রায় ১৩ বছর ধরে মা গোলাপী বেগমকে নিয়ে নৌ’কায় ব’স’বা’স করছেন ছেলে নুরু মিয়া (৫৩)। গ্রামে একাধিক সা’লি’শ-দরবার করেও স্ত্রীর

সঙ্গে স’ম’স্যার সমাধান হয়নি। নুরু মিয়া জ’য়’ন্তী নদীতে মাছ ধরেন। এতে যা রো’জ’গা’র হয় তা দিয়েই মা-ছেলের চলে যায়।
তবে মা-ছেলের দীর্ঘ-দিনের স্বপ্ন ছিল ছোট্ট একটা ঘরে দু’জনে একস’ঙ্গে থাকবেন। এরজন্য চে’য়া’র’ম্যা’ন, মেম্বার,

গণ্যমান্যদের কাছে কম ঘোরেননি নুরু মিয়া। অবশেষে গ’ণ’মা’ধ্য’মে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর বয়স্ক ভাতার কার্ড আর নগদ অর্থ স’হা’য়’তা পান গোলাপী বেগম। এখন পাকা ঘরের চাবি ও জা’য়’গা পেয়েও খুশি তিনি।

About Gazi Mamun

Check Also

ব্যবসায়ী মেহেদি হাসানের দেওয়া একটি কাঠের ব্রীজে বদলে গেল গ্রামটির চিত্র

একটি সেতুর অভাবে দীর্ঘদিন ধরে দুই পাড়ের জনপদের যোগাযোগ অনেকটা বিচ্ছিন্ন। আর বর্ষা মৌসুমে তো …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *