কঠোর বিধিনি,ষেধ উপেক্ষা করে ওসির মাস্কবিহীন নৌ,ভ্রমণ! পুলিশ সুপার বললেন…

কঠোর বিধিনি,ষেধ উপেক্ষা করে কুমিল্লার মুরাদনগর থানার ওসি সাদেকুর রহমানের নৌভ্রমণ করেন গত ২৩ জুলাই। সেই ছবিগুলো বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হলে সচেতন মহলে আলোচনা

সমালোচনার ঝড় ওঠে। ওসি স্বপরিবারে ও বন্ধুদেরসহ দুইজন পোশাকধারী এসআই সঙ্গে নিয়ে মা,স্কবিহীন নৌভ্রমণ করেন। পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ বলেছেন, ওসির মুখে মা,স্ক না থাকা ছবি যদি ভাইরাল হয় তাহলে বিষয়টি তদ,ন্ত করে দেখা

হবে এবং অফিসিয়াল প্রসিডিউর অনুযায়ী ব্য,বস্থা নেয়া হবে।জানা গেছে, মুরাদনগরের কিছু স্থানীয় লোকজন ও পরিবার পরিজন নিয়ে মুরাদনগর সদর ইউনিয়নের তিতাস সেতু এলাকায় নীচে নৌভ্র,মণে যান মুরাদনগর থানার ওসি সাদেকুর রহমান। তার সাথে থাকা বন্ধুরা সেলফি তুলে একের পর এক সামাজিক যোগাযোগ

মাধ্যম ফেসবুকে ছবি পোষ্ট করেন। বৃ,হস্পতিবার (২৯ জুলাই) একাধিক ব্য,ক্তির ফেসবুক আইডি থেকে এ ছবি প্রকাশ হওয়ার পর নিমিষেই ভাইরাল হয়ে যায়। কেউ ওসিকে পছন্দ করে ছবিগুলো শেয়ার করেছেন। আবার মা,স্কবিহীন এসব ছবি দেখে বিরুপ মন্তব্য করেছেন। ভাইরাল হওয়া এসব ছবিতে ওসির সঙ্গে

নৌ,ভ্রমণে পোশাক পরিহিত দুইজন এসআই’র ছবিও দেখা যায়। করোনাকালে কঠোর বিধিনিষেধের মাঝে আনন্দভ্রমণের এমন ছবির কারণে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন ওসি। ফেসবুকে এ নিয়ে ওসির সমালোচনা করে পোস্ট দিচ্ছেন অনেকে।আক্তার মিয়া নামের একজন ফেসবুকে মন্তব্য করেন, ‘এবার দৌড়াবেন কাকে জনাব?

আপনারা এগুলো করলে আনন্দভ্র,মন, আর সাধারণ মানুষ করলে করোনাভ্রমন।’তফাজ্জল হোসেন নামের এক ব্যক্তি তার ফেসবুকে ছবিগুলো শেয়ার করে লিখেছেন, ‘আবারো প্রমাণিত হলো- আইন সবার জন্য সমান নয়! সকাল বেলা কর্তব্যরত অবস্থায় লকডাউন অমান্যকারীদের দৌড়ায়, আর ওনি নিজেই

বিকেল বেলা পরিবার-পরিজন নিয়ে আনন্দ ভ্রমণে বের হওয়া কতটুকু যু,ক্তিসঙ্গত? তাছাড়া পরিবারের ছোট সদস্যদের নিয়ে নৌকার ছাদে ওঠে ঝুকিপূর্ন ছবিও প্রকাশ করেছেন, যা আমাদের কাছে দায়িত্বহীনতা প্রকাশ পেয়েছে।’মা,স্কবিহীন নৌভ্রমণ বিষয়ে মুরাদনগর থানার ওসি সাদেকুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন,

আমার পরিবারের লোকজন জেলা সদরে থাকেন, ঈদ উপলক্ষে আমার এখানে এসেছেন। তাই তাদেরকে সঙ্গে নিয়ে নৌকাযোগে ঘুরতে বেরিয়েছি। আমার তো একটা ব্য,ক্তিগত জীবন আছে। আমি স্ত্রী-সন্তানদের সময় দিতে পারছি না বলে সঙ্গে নিয়ে গেছি। এটা নিয়ে নিউজ করার মতো কী আছে।’

About Gazi Mamun

Check Also

১৫ দিনে ভেঙে গেছে গ্রামবাসীর স্বপ্ন

বছরের পর বছর কাঁচা রাস্তা দিয়ে চলাচল করেছিল গ্রামের মানুষ। হাঁটুপানি আর কাদা মাড়িয়ে যাতায়াত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *