আদালতের নজির স্থাপন:বৃদ্ধ মা ও সন্তানদের যত্ন নেয়ার শর্তে আসামিকে মুক্তি

মাদক মামলার আসামিকে সংশোধনের সুযোগ দিয়ে নজির স্থাপন করলেন আপিল বিভাগ। বৃদ্ধ মা ও ছেলে মেয়ের যত্ন নেয়াসহ বেশকিছু শর্তে মাদক মামলায়

দোষী সাব্যস্ত হওয়া সোনাগাজীর মতি মাতব্বরকে প্রবেশনে মুক্তির নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। রোববার সকালে বিচারপতি জাফর আহমদে চৌধুরীর একক বেঞ্চ যুগান্তকারী এ রায় দেন। আদালত

দেড় বছরের জন্য আসামিকে প্রবেশন দেন। এসময় আসামি মতি মাতবরকে ছেলে মেয়ের লেখাপড়া ও দেখাশোনা নিশ্চিত করতে হবে। আইন অনুযায়ী বয়স না হওয়া পর্যন্ত আসামী তার মেয়ের

বিয়ে দিতে পারবেন না বলেও জানান আদালত। ২০১৫ সালে মতি মাতবর এবং অপর একজন আসামির কাছ থেকে ১ হাজার ১১১ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। সেই মামলায় ২০১৭ সালে ৫ বছরের

জেল হয় মতি মাতবরের। পরে আসামি একটি রিভিশন মামলা করলে সেই রায়ে বিচারক এই প্রবেশন দিলেন। এরমধ্যে আসামি ২০ মাস জেলে ছিলেন আসামি।

আসামি মতি মাতব্বর জানান, আদালত তাকে যে যে শর্ত দিয়েছে তিনি তা মেনে চলবেন। সংশোধনের সুযোগ দেয়ায় তিনি আদালতের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

About Gazi Mamun

Check Also

পু’লিশ সার্জেন্ট আমাকে এইভাবে সাহায্য করবে আমি ভাবতে পারি নাই

নিজের বাইকের তেল পলিথিনে ভরে ফ্লাইওভা’রের উপর বিপদে পড়া এক বাইকআরোহীকে দিয়ে মানবিকতার পরিচয় দিলেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *