বাংলাদেশে না আসার কারণ জানালেন মরগান

আগামী সেপ্টেম্বরে তিন ওয়ানডে এবং সমান টি-টোয়েন্টি খেলতে বাংলাদেশে আসার কথা ছিল ইংল্যান্ড জাতীয় ক্রিকেট দলের। গত সোমবার (২ আগস্ট) সফরটি স্থগিত হয়ে যায়। নতুন সূচি অনুযায়ী দেড় বছর

পিছিয়ে ২০২৩ সালের মার্চে টাইগারদের ডেরায় আসবে ইংলিশরা। পূর্বনির্ধারিত সূচিতে বাংলাদেশ সফরে না এসে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ, আইপিএল খেলতে চান ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা। এ নিয়ে ভক্তদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ইংলিশদের সীমিত ওভারের

ক্রিকেটের দলপতি এবার নিজেদের সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে যুক্তি দাঁড় করালেন। আগামী সেপ্টেম্বরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের স্থগিত হওয়া অংশ শুরু হবে। বাংলাদেশ সফরে আসলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভিন্ন কন্ডিশনে খেলতে হবে। তাই

কুুড়ি ওভারের বিশ্বমঞ্চের প্রস্তুতির কথা মাথায় রেখে বাংলাদেশে না এসে কোটি টাকার আসরকেই বেছে নিয়েছেন ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা। মরগার জানালেন, আইপিএলে না গিয়ে কেউ চাইলে বিশ্রামও নিতে পারবে। গণমাধ্যমকে এই তারকা ক্রিকেটার বলেন,

‘আইপিএলে খেলা পুরোপুরি ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। আমার মতে, এটা দুইভাবেই লাভজনক হবে। আমরা যদি বাংলাদেশে খেলতাম, সেখানে বিদেশি কন্ডিশনেই পড়তাম। এখন ছেলেরা যদি আইপিএলে যায়, সেখানে বিশ্বকাপের মতো একই কন্ডিশন পাবে।

কেউ যদি বিশ্রাম চায়, বিশ্রাম নেবে।’ ‘সাম্প্রতিক সময়ে এখানে-সেখানে অনেক ক্রিকেট খেলেছি। এখন যে সফর বা সিরিজ চলছে, সে বিষয়ে আমরা আরও আগে থেকে পরিকল্পনা সাজিয়ে রাখি। একইভাবে এখন যেভাবে আমাদের থাকতে হচ্ছে, তাতে

কেউ যদি বিশ্রাম চায় সে নিতেই পারে। আবার কেউ নিজেকে রিফ্রেশিং মনে করলে আইপিএলেও যেতে পারে।’ যোগ করেন মরগান। সফর দেড় বছর পেছালেও সম্ভাব্য ভেন্যুর নাম প্রকাশ করেছে ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড, ইসিবি। ২০২৩

সালের মার্চের প্রথম দুই সপ্তাহে খেলা মাঠে গড়ানোর সম্ভাবনা আছে। ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে হোম অব ক্রিকেট খ্যাত মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এবং চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে।

About Gazi Mamun

Check Also

সব ধরণের ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা মালিঙ্গার

ক্রিকেট বুঝেন, অথচ লাসিথ মালিঙ্গা চেনেন না? প্রশ্নটাই কেমন অবান্তর শোনাচ্ছে। ঝাঁকড়া রঙিন চুল, অদ্ভূত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *