করোনা হাসপাতাল থেকে ১০০ অক্সিজেন সিলিন্ডার গায়েব

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতা’লের করো’না ওয়ার্ড থেকে প্রায় ১০০ অক্সিজেন সিলিন্ডার এবং প্রায় ১০০ হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা গায়েব হয়ে গেছে। এ ঘটনা ত’দন্তে একজন চিকিৎসককে প্রধান

করে ছয় সদস্যের ত’দন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। গত সাত দিন ধরে হাসপাতা’লের বিভিন্ন ওয়ার্ডে খোঁজাখুঁজি করেও এসব সিলিন্ডার এবং ক্যানোলার সন্ধান পাওয়া যায়নি। বিষয়টি এতদিন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ গো’পন রাখলেও শনিবার (২১ আগস্ট)

ত’দন্ত কমিটি সূত্রে তা প্রকাশ পায়। ত’দন্ত কমিটির প্রধান হলেন ডা. মাহামুদ হাসান। অ’পর সদস্যরা হলেন সেবা তত্ত্বাবধায়ক সেলিনা আক্তার ও ওয়ার্ড মাস্টার দুই জন এবং তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী সংগঠনের সভাপতি ও সম্পাদক। তাদের দ্রুত সময়ের মধ্যে ত’দন্ত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

হাসপাতা’লের স্টোর সূত্র জানায়, করো’না ওয়ার্ডের মাস্টারদের মাধ্যমে অক্সিজেন সিলিন্ডার ও হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা সরবরাহ করা হয়। ইতোমধ্যে কোন ওয়ার্ডে কতটি অক্সিজেন সিলিন্ডার ও হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা নেওয়া হয়েছে তার তালিকা রয়েছে। তালিকা অনুযায়ী বিভিন্ন ওয়ার্ডে খোঁজ নিতে

গেয়ে দেখা যায়, ১০০টি সিলিন্ডার ও ১০০টি হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা নেই। এরপর যেখানে স্বাভাবিক রোগীদের (নন-কোভিড ওয়ার্ড) চিকিৎসা’সেবা চলছে সেখানেও খোঁজ নেওয়া হয়। কিন্তু কোথাও খুঁজে পাওয়া যায়নি। তাদের ধারণা এগুলো চু’রি হয়েছে। বিষয়টি পরিচালককে জানালে তিনি ত’দন্ত কমিটি গঠন করে

দেন। ত’দন্ত কমিটির সদস্য সেবা তত্ত্বাবধায়ক সেলিনা আক্তার বলেন, স্টোর থেকে সিলিন্ডার ও হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা চু’রি হয়েছে। বিষয়টি হাসপাতা’লের পরিচালককে জানানো হলে সাত দিন আগে ত’দন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এরপর প্রতি ওয়ার্ডে সিলিন্ডার ও হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলার সন্ধান চালানো হচ্ছে। কিন্তু শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত খোঁজ মেলেনি। এ জন্য

একজনকে শোকজ করা হয়েছে। রবিবারও বিভিন্ন ওয়ার্ডে সন্ধান চালানো হবে। এরপর প্রতিবেদন দেওয়া হবে। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে হাসপাতা’লের পরিচালক ডা. এইচএম সাইফুল ইস’লাম বলেন, অক্সিজেন সিলিন্ডার এবং হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা পাওয়া যাচ্ছে না। এ জন্য ত’দন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি প্রতিবেদন দিলে বিষয়টি স’ম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে। হাসপাতাল সূত্র জানায়, করো’না ওয়ার্ডে অক্সিজেন

সংকটের কারণে বিভিন্ন সময় নিজস্ব অর্থায়নে এবং বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে অক্সিজেন সিলিন্ডার ও হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা দেওয়া হয়। সেখানে ছোটবড় মিলিয়ে অক্সিজেন সিলিন্ডার ছিল ৬১৬টি। হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা ছিল ১১৩টি

About Gazi Mamun

Check Also

পদ্মা সেতু এলাকায় পাগলের ছদ্মবেশে থাকা সন্দেহজনক ১৬ ভারতীয় গ্রেপ্তার

পদ্মা সেতু এলাকা থেকে গত সাড়ে চার বছরে ১৬ ভারতীয় নাগরিককে গ্রে’প্তা’র করা হয়েছে। সন্দে’হজনকভাবে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *