ছেলে ও মেয়েদের একই শ্রেণিকক্ষে পড়ানো যাবে না: তালেবান!

আফগান মেয়েদের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করার অনুমতি দিয়েছে তালেবান কর্তৃপক্ষ। তবে তালেবানের পক্ষ থেকে গতকাল রোববার (২৯ আগস্ট) জানানো হয়েছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এখন থেকে ছেলে ও মেয়েদের একই শ্রেণিকক্ষে

পড়ানো যাবে না। তারা আরও জানায়, তাদের সর্বোচ্চ নেতা হাইবাতুল্লাহ আকুন্দজাদা শিগগিরই জনসমক্ষে আসবেন। বর্তমানে কান্দাহারে অবস্থান করছেন তিনি। তালেবানের নিয়োগ করা ভারপ্রাপ্ত শিক্ষামন্ত্রী আবদুল বাকি হাক্কানি এসব কথা জানান।

আবদুল বাকি বলেন, ‘আফগানরা উচ্চ শিক্ষা অবশ্যই চালিয়ে যেতে পারবেন। তবে শরিয়তি আইন মেনেই। ছেলে ও মেয়েরা একই শ্রেণিকক্ষে পড়াশোনা করতে পারবেন না। ইসলাম এবং রাষ্ট্রের ঐতিহ্য, সংস্কৃতি মেনে নতুন একটি সমাজ ব্যবস্থা গড়ে

তোলা হবে। তিনি আরও বলেন, শিগগিরই বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলে দেওয়া হবে। শিক্ষক এবং মন্ত্রণালয়ে কর্মরতদের বেতন পরিশোধ করা হবে। এদিকে, কাবুল বিমানবন্দরের আশপাশে যেকোনো সময় আবারও হামলা হতে পারে—মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের

এমন সতর্কবার্তার কয়েক ঘণ্টা পরেই গতকালের বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণের শব্দটি আসে বিমানবন্দরের উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে। হামলার শিকার হওয়া ভবন ও কাবুল বিমানবন্দরের দূরত্ব প্রায় তিন মাইল। বিস্ফোরণের পর টুইটারে একটি ফুটেজ পোস্ট করেন সাংবাদিক শাফি করিমি। ফুটেছে দেখা যায়, একটি

ভবন থেকে ব্যাপক পরিমাণে কালো ধোঁয়া নির্গত হচ্ছে। আশপাশের ভবনের ছাদে অনেক মানুষ ছোটাছুটি করছে। ভবনের নিচেও অনেক মানুষকে ছোটাছুটি করতে দেখা গেছে। বিস্ফোরণের পরেই কাবুলের পুলিশপ্রধান রশিদ জানান, প্রাথমিকভাবে এক শিশুর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে।

গতকাল একই সময়ে আত্মঘাতী হামলাকারীদের লক্ষ্য করে ড্রোন হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন সামরিক কর্মকর্তারা জানান, ইসলামিক স্টেটের আফগান শাখার (আইএস-কে) জঙ্গিরা গাড়িবোঝাই বিস্ফোরক পদার্থ নিয়ে

কাবুল বিমানবন্দরের দিকে যাচ্ছিল। তাদের লক্ষ্য করে সফল ড্রোন হামলা চালানো হয়। আফগানিস্তানের বাইরে থেকে এই হামলা পরিচালনা করা হয় বলেও জানান মার্কিন কর্মকর্তারা।

About Gazi Mamun

Check Also

আমি মরিনি, ভালো আছি: ভিডিও বার্তায় বারাদার

পাকিস্তানের সীমান্তে মিত্র হাক্কানি নেটওয়ার্কের সঙ্গে সংঘর্ষে তালেবানের শীর্ষ নেতা ও আফগানিস্তানের ভারপ্রাপ্ত উপ প্রধানমন্ত্রী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *