Home / শিক্ষাঈন / স্কুলে ভর্তির আবেদন ফি ১১০ টাকার বেশি নয়

স্কুলে ভর্তির আবেদন ফি ১১০ টাকার বেশি নয়

দেশের মহানগর ও জেলা পর্যায়ের সরকারি ও বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ২০২২ শিক্ষাবর্ষে প্রথম শ্রেণি থেকে নবম শ্রেণিতে ভর্তি প্রক্রিয়া কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইন লটারির মাধ্যমে চলছে। কেন্দ্রীয় ভর্তি

কার্যক্রমে যেসব সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করতে পারেনি সেসব স্কুলে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে ১১০ টাকার বেশি আবেদন ফি না নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) মাধ্যমিক ও উচ্চ

শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে যেসব স্কুল কেন্দ্রীয় ভর্তি কার্যক্রমে অংশ নিতে পারেনি সেসব স্কুলে ভর্তির প্রক্রিয়া জানিয়ে সব সরকারি ও বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের চিঠি পাঠানো হয়েছে। প্রধান শিক্ষকদের পাঠানো চিঠিতে ১১০ টাকার বেশি

ভর্তির আবেদন ফি না নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এতে অধিদপ্তর বলছে, ২০২২ শিক্ষাবর্ষে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশিত শিক্ষার্থী ভর্তির আবেদন ফরমের ফি সরকারি ও বেসরকারি স্কুলের ক্ষেত্রে কোনোক্রমেই ১১০ টাকার বেশি নেওয়া যাবে না। ২০২২

শিক্ষাবর্ষে সারাদেশের সব সরকারি ও বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রথম থেকে নবম শ্রেণিতে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী নির্বাচন করা ছাড়া অন্য কোন পরীক্ষা নেওয়া যাবে না। সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে

সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ভর্তি নীতিমালা (সংশোধিত-২০২১) এ গঠিত ঢাকা মহানগর বা জেলা বা উপজেলা ভর্তি কমিটির উপস্থিতিতে লটারি প্রক্রিয়া অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শিক্ষার্থী নির্বাচন করতে হবে। বেসরকারি মাধ্যমিক

বিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জারি করা সর্বশেষ নীতিমালায় গঠিত মহানগরী বা জেলা বা উপজেলা ভর্তি তদারকি ও পরিবীক্ষণ কমিটির উপস্থিতিতে লটারি প্রক্রিয়া অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শিক্ষার্থী নির্বাচন করতে হবে। লটারির স্বচ্ছতা ও

জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে বিদ্যালয়ের ভর্তি পরিচালনা কমিটি, ঢাকা মহানগরীর ক্ষেত্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি, মহাপরিচালকে প্রতিনিধি, অভিভাবক প্রতিনিধি, ব্যবস্থাপনা কমিটির প্রতিনিধি ও শিক্ষক প্রতিনিধির উপস্থিতি নিশ্চিত করতে হবে।
২০২২ শিক্ষাবর্ষে সরকারি ও বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে

লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী নির্বাচন প্রক্রিয়া অবশ্যই আগামী ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যে করতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে লটারি কার্যক্রম পরিচালনার ব্যবস্থা করতে হবে। প্রযোজ্য ক্ষেত্রে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তা গ্রহণ করতে হবে।
লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী নির্বাচন প্রক্রিয়াটি যেন কোনভাবেই

প্রশ্নবিদ্ধ না হয় তা নিশ্চিত করতে হবে প্রতিষ্ঠান প্রধানদের।
কেন্দ্রীয় ভর্তি কার্যক্রমে যেসব সরকারি ও বেসরকারি স্কুল অংশগ্রহণ করতে পারেনি সেসব স্কুলে শিক্ষার্থী ভর্তির কার্যক্রম এসব নির্দেশনা মেনে পরিচালনা করতে নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর।

About Gazi

Check Also

মাধ্যমিক পরীক্ষা কি অফলাইন না অনলাইন? দেখে নিন সূ’চি

২০২২ সালের মাধ্যমিক পরীক্ষা নিয়ে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ থেকে নেওয়া হল নতুন সিদ্ধান্ত। অনলাইনের গুঞ্জন সরিয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *