Home / বিনোদন ডেক্স / অসুস্থ মাহি, সরে দাঁড়ালেন ইমনের সাথে আর অভিনয় করবেন না

অসুস্থ মাহি, সরে দাঁড়ালেন ইমনের সাথে আর অভিনয় করবেন না

চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি কিছুদিন আগেই স্বামীসহ ওমরা পালন করেছেন। সম্প্রতি তারা দেশে ফিরেছেন। এই নায়িকার আগামী ১৭ ডিসেম্বর থেকেই ক্যামেরার

সামনে দাঁড়ানোর কথা ছিল। মাহি গুণী নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরীর পরিচালনায় ‘কাগজের বিয়ে’ নামের একটি ওয়েব ফিল্মে অভিনয়ের জন্য চূড়ান্ত ছিলেন। এতে তার বিপরীতে ছিলেন ইমন।

কিন্তু চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি শারীরিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে ওয়েব ফিল্ম থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।
মাহি বুধবার (১৫ ডিসেম্বর) মধ্যরাতে ফেসবুক স্ট্যাটাসে

লিখেছেন, ‘কাগজের বউ হয়ত শারীরিক অসুস্থতার কারনে আমার আর করা হচ্ছে না। কিন্তু কাগজের বউয়ের জন্য আমার পক্ষ থেকে অনেক অনেক দোয়া। আমার সুস্থতার জন্য সবাই

দোয়া করবেন। ইমন-মাহির দ্বিতীয়বারের মতো জুটি বাঁধার কথা ছিল। এর আগে তারা ‘মাফিয়া’ নামের একটি ওয়েব ফিল্মে জুটি বেঁধে কাজ করেছিলেন। তবে সেটি এখনও মুক্তি পায়নি।

এদিকে চিত্রনায়িকা মাহি ওমরাহ শেষে মরুভূমির বুকে স্বামীর সঙ্গে রোমান্টিক মুডে ধরা দিয়েছেন। তার শেয়ার করা ছবিতে দেখা যায়, নায়িকা স্বামীর সঙ্গে বেশ ফুরফুরে মেজাজে রয়েছেন।

মাহি-রাকিবের সময়টাকে উপভোগের জন্য বিকেলের সূর্যটাও যেন সোনালি প্রান্তরে রূপ নিয়েছিল। উষ্ণ মরুর বুকে এই জুটি স্বপ্ন জড়ানো ভালোবাসার কাব্য লিখেছেন। মাহি সৌদি আরব

থাকাকালে সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের সঙ্গে তার একটি কল রেকর্ড ফাঁস হয়। দেশজুড়ে এই ঘটনায় বিতর্কের ঝড় ওঠে। সেই বিতর্কের রেশ ধরে মন্ত্রিত্ব হারান মুরাদ। দেশে ফেরার

আগেই মাহি কল রেকর্ডের বিষয়ে একটি ভিডিও বার্তা দিয়েছিলেন। সেখানে তিনি বলেন, ‘আপনারা নিজে থেকে একবার চিন্তা করে দেখবেন আসলে সেই সময় আমি এই ভাষার প্রতিউত্তর কী দিতাম? আমার সেদিন বলার ভাষা ছিল না।

আমি সেদিন নিজের মতো করে উত্তর দিয়ে পাশ কাটিয়ে গিয়েছিলাম।
মাহি দেশে ফিরে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার ইচ্ছা পোষণ করেছিলেন। তবে সেই সুযোগটা হবে কি না, তা এখনও জানা যায়নি।

About Gazi

Check Also

রিয়াজ ভাই, দয়া করে নোংরামি করবেন না: জায়েদ খান

আসন্ন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনকে বিতর্কিত করতে একটি গোষ্ঠী উঠেপড়ে লেগেছে বলে দাবি করেছেন চলচ্চিত্র …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *