Home / আন্তর্জাতিক / এটাই বোধয় অবলা জীবের ভালোবাসা! মাহুতকে পিছন থেকে শুড় দিয়ে জড়িয়ে আদর করছে বাচ্চা হাতি

এটাই বোধয় অবলা জীবের ভালোবাসা! মাহুতকে পিছন থেকে শুড় দিয়ে জড়িয়ে আদর করছে বাচ্চা হাতি

এটাই বোধয় অবলা জীবের ভালোবাসা! মাহুতকে পিছন থেকে শুড় দিয়ে জড়িয়ে আদর করছে বাচ্চা হাতি
শখে অনেকেই বাড়িতে পোষ্য (pet) পালন করেন। আবার অনেকেই পশুপালনকেই জীবিকা

বানিয়ে নিয়েছেন। এই যেমন ধরুন অনেকেই গবাদি পশুপালন করেন আর তাদের সাহায্যেই জীবিকা নির্বাহ করেন। আবার চিড়িয়া খানায় অনেকে পশুদের দেখাশোনা করেন। এই সমস্ত পশুদের সাথে সময় কাটাতে কাটাতে একসময় মায়ার বাঁধনে

জড়িয়ে পড়ি আমরা। পোষ্য যে কুকুর বিড়াল হবে তার কোনো মানে নেই ঘোড়া, হাতি এরাও হতেই পারে। সম্প্রতি একটি বাচ্চা হাতির ভিডিও বেশ ভাইরাল হয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। হাতিদের যারা দেখাশোনা করেন তাদেরকে বলা হয় মাহুত।

এরা হাতিদের স্নান করানো থেকে শুরু করে খাওয়ানো এমনকি তাদের প্রশিক্ষণ পর্যন্ত দিয়ে থাকেন। আর যেহেতু দিনের অনেকটা সময় একেঅপরের সঙ্গে কাটে তাই বন্ধন আরও বেড়ে যায় দুজনের মধ্যে। ভাইরাল হওয়া ভিডিওতেও এক মাহুতের সাথে এক ছোট্ট হাতির ভালোবাসার ছবি স্পষ্ট।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে এক মাহুত হাতিকে খাবার দেবার পর জায়গাটি ঝাড়ু দিয়ে পরিষ্কার করছে। আর সেই সময় ছোট্ট হাতিটি মাহুতকে নিজের শুঁড় দিয়ে জড়িয়ে ধরে আদর করছে। ঠিক যেমন বাড়ির ছোট সদস্যরা মা-বাবাকে পিছন থেকে জড়িয়ে ধরে। ঠিক

তেমনি করেই মাহুতকে জড়িয়ে ধরেছে হাতিটি।হাতিটিকে দেখতেও কিন্তু বেশ। আর পাচটা হাতির থেকে একটু আলাদাই দেখতে এই হাতিটিকে। তার মুখের আশেপাশের চুল বেশ সুন্দর করে কাটা। যেন হেয়ার স্টাইল করেছে হাতিটি। মানুষ ও হাতির আদরমাখা

সুন্দর এই ছবিটি শেয়ার করেছেন ইন্ডিয়ান ফরেস্ট সার্ভিস কর্মী সুশান্ত নন্দ। ছবিটি শেয়ার হবার পর থেকেই বেশ ভাইরাল হয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। ছবিটি আসলে আনন্দ শিন্ডে নামের

এক ব্যক্তির তোলা। ছবিতে যে ছোট্ট হাতিটিকে দেখা যাচ্ছে সেটি আসলে একটি মেয়ে হাতি যার নাম গঙ্গা। আর যে মাহুতটিকে জড়িয়ে ধরে রয়েছে হাতিটি তার নাম রাজীব

About Gazi

Check Also

বেটি পড়াও বলতে গিয়ে মুখ ফসকে বেটি পটাও, সমালোচনায় মোদি

ভারতের পঞ্চদশ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বেশ কিছু দিন আগেই আন্তর্জাতিক মঞ্চে ভাষণ দিতে গিয়ে টেলিপ্রম্পটার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.