Breaking News
Home / খেলা-ধুলা / পাপনের কারনে চাকরি ছাড়ছেন আকরাম; মাশরাফি ফিরবে

পাপনের কারনে চাকরি ছাড়ছেন আকরাম; মাশরাফি ফিরবে

বিশ্বকাপের টালমাটাল পারফরমেন্সের পর বাংলাদেশের ক্রিকেটে অনেক ভাঙাগড়া আভাস। এরইমধ্যে টিম নিয়ে চলেছে বেশকিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা। জোর গুঞ্জন আছে কোচিং স্টাফ নিয়েও। এরই মাঝে বোর্ডেও স্পষ্ট পরিবর্তনের আভাস।

পারিবারিক কারণে বিসিবির গুরুত্বপূর্ণ পদ থেকে সরে দাঁড়াতে চান আকরাম খান। ৮ বছর কাজ করার পর একটু বিরতি নিতে চান তিনি। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের পরামর্শ অনুসরণ করবেন বলে

জানিয়েছেন ১৯৯৭ সালের আইসিসি ট্রফি জয়ী অধিনায়ক। তবে বিসিবি সূত্রে জানা গেল ভিন্ন কথা। বোর্ড সভাপতির সাথে ক্রমেই ঘনীভূত হতে থাকা দূরত্বের কারণেই সরে যাচ্ছেন আকরাম মঙ্গলবার বিকেলে বিসিবিতে উপস্থিত সাংবাদিকদের আকরাম খান বলেন, আজ আমি কোনো কথা বলতে চাইনি। তবে আপনারা

সবাই চলে এসেছেন বলে জানিয়ে রাখি, পারিবারিক কারণে নিজের ব্যাপারে কিছু সিদ্ধান্তের পরিকল্পনা করেছি আমি। ৮ বছর যাবত ক্রিকেট অপারেশন্সে ছিলাম, আমার অভিভাবক নাজমুল হাসান পাপনের সহযোগিতা পেয়েছি সবচেয়ে বেশি। ভালো-খারাপ সব সময়েই তাকে পাশে পেয়েছি আমি। উনার সাথে

আলাপ করে হয়তো আগামীকালের মধ্যে আমার সিদ্ধান্তের ব্যাপারে জানাতে পারবো। আমি আজ বোর্ড সভাপতিকে ফোন করেছি। তবে উনি ফোন রিসিভ করেননি। কথা হলেই আমি সিদ্ধান্ত নিতে পারবো। আর কাল তো বিসিবিতে সভাপতির সাথে দেখা হচ্ছেই। বোর্ড সভাপতিকে অবগত না করে কোনো সিদ্ধান্ত যেমন আমি নেবো না, তেমনি এ ব্যাপারে এখনই কিছু বলতে চাচ্ছি না।

কিন্তু বোর্ডের একাধিক সূত্র যমুনা নিউজকে জানিয়েছেন, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দলের বাজে পারফরমেন্সের পর থেকেই নাকি আকরামের ওপর ক্ষিপ্ত বোর্ড সভাপতি। বিশ্বকাপে দলের অলিখিত টিম লিডারের দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল তাকে। এজন্য বোর্ডের তরফ থেকে মোটা অঙ্কের আর্থিক বরাদ্দও ছিল। কিন্তু টিম হোটেলে না থেকে আলাদাভাবে থেকেছেন আকরাম। এতেই নাকি চটেছেন বোর্ড সভাপতি। তার যুক্তি, টিম লিডার যদি টিমের সাথেই না থাকলেন

তাহলে গুলশানে থাকা আর দুবাই থাকায় ফারাক কোথায়?
সূত্র জানাচ্ছে, বিসিবির সর্বশেষ জরুরি বৈঠকেও আকরামকে ডাকেননি বোর্ড সভাপতি। বরং আকরামের প্রতি বিরক্ত প্রকাশ করতে দেখা গেছে তাকে। অন্যদিকে, মঙ্গলবার আকরাম বোর্ড সভাপতির পরামর্শেই সব করবেন জানালেও তার ফোন যে পাপন রিসিভ করেননি সেটিও গণমাধ্যমে জানিয়েছেন। অবশ্য, আকরাম এও বলেছেন, হয়তো যেকোনো সময় তিনি (বোর্ড সভাপতি)

কল ব্যাক করবেন। এতেও দুয়ে দুয়ে চার মেলাচ্ছেন কেউ কেউ।
এর আগে, গত সোমবার (২০ ডিসেম্বর) বিকেলে আকরামের স্ত্রী সাবিনা আকরাম ফেসবুক পোস্ট দিয়ে জানিয়েছেন, ‘ক্রিকেট অপারেশন্স ছেড়ে দিচ্ছে আকরাম খান।’ সাবিনা আকরামের এই পোস্ট ঝড়ের বেগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। সাথে সাথেই নিজের ফোন বন্ধ করে দেন আকরাম খান। যে কারণে ফোন করে তার প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

১৯৯৭ সালের আইসিসি ট্রফি জয়ী অধিনায়ক আকরাম খান ২০১৪ সালে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক নির্বাচিত হয়েছিলেন। এরপর থেকেই তিনি ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। জানা গেছে আকরাম দায়িত্ব ছেড়ে দিলে আগামী সপ্তাহে বিসিবির প্রথম বোর্ড সভায় ক্রিকেট অপারেশন্সের নতুন চেয়ারম্যানের নাম ঘোষিত হতে পারে।

About Gazi

Check Also

মৃত্যু শুধুমাত্র আল্লাহ’র হাতে এবং এটা সময় মতোই আসবে – সাদিও মানে

গতকাল রবিবার পর্দা উঠেছে আফ্রিকান কাপ অব নেশন্সের ৩৩তম আসর। উদ্বোধনী দিনেই মাঠে নেমেছিল স্বাগতিক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *