Home / আজকের খবর / যৌ’ন নি’র্যাতনের পর ভিডিও ধারণ, লজ্জায় স্কুলছাত্রীর আত্মহ’ত্যা

যৌ’ন নি’র্যাতনের পর ভিডিও ধারণ, লজ্জায় স্কুলছাত্রীর আত্মহ’ত্যা

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে এক স্কুলছাত্রীকে স্কুল প্রাঙ্গণ থেকে ধরে নিয়ে যৌ’ন নি’র্যাতন এবং ভিডিও চিত্র ধারণের ঘটনা ঘটেছে একই এলাকার প্রভাবশালী পরিবারের তিন যু’বকের বিরুদ্ধে। ঘটনার পর লোকলজ্জার

ভয়ে ওই স্কুলছাত্রী আত্মহ’ত্যা করেছে। এ ঘটনায় জড়িতদের অবিলম্বে গ্রে’ফতার ও ফাঁ’সির দাবিতে ফুঁসে ওঠেছে এলাকাবাসী ও স্কুলছাত্রীর সহপাঠীরা। গত শনিবার (২৫ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টার উপজেলার বনগ্রাম ইউনিয়নের আনন্দ কিশোর স্কুল অ্যান্ড

কলেজের কাছে ওই স্কুলছাত্রীকে যৌ’ন নি’র্যাতন করে ভিডিও চিত্র ধারণ করে তিন যু’বক। পরে দুপুর ২টার দিকে নিজ বাড়িতে আত্মহ’ত্যা করে ওই স্কুলছাত্রী।
কটিয়াদী মডেল থানায় দায়ের করা মামলা সূত্রে জানা গেছে, ওই ছাত্রী এবার বনগ্রাম আনন্দ কিশোর স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে

অষ্টম শ্রেণি পাস করেছে। নবম শ্রেণিতে ভর্তির ফরম আনতে গত শনিবার দুপুর ১২টার দিকে স্কুলে যায় সে। এ সময় স্কুল প্রাঙ্গণ থেকে তাকে ধরে নিয়ে যায় বনগ্রাম গ্রামের মলাই মিয়ার ছেলে আকাশ মিয়া, ছিদ্দু মিয়ার ছেলে আরমান মিয়া ও পার্শ্ববর্তী নন্দীপুর গ্রামের বকুল মিয়ার ছেলে ইমন মিয়া। তারা ওই

স্কুলছাত্রীকে স্কুলের সীমানা প্রাচীরের আড়ালে নিয়ে যায়। সেখানে একে একে তিনজন তাকে যৌ’ন নি’র্যাতন করে এবং নি’র্যাতনের সময় মোবাইলে ভিডিও চিত্র ধারণ করে। ওই স্কুলছাত্রী চি’ৎকার করে একপর্যায়ে তিন যু’বকের হাত থেকে ছাড়া পেয়ে স্কুলের শিক্ষক, স্থানীয় চেয়ারম্যান, বাজারের লোকজন এবং

এলাকাবাসীকে এ ঘটনা জানিয়ে বিচায় পায়নি। এমন পরিস্থিতিতে মোবাইল ফোনে মায়ের কাছে যৌ’ন নি’র্যাতন ও ভিডিও চিত্র ধারণের কথা জানায় সে। তার মা এসে স্কুল থেকে তাকে বাড়িতে নিয়ে যান। পরে দুপুর ২টার দিকে আত্মহ’ত্যার পথ বেছে নেয় ওই স্কুলছাত্রী। এদিকে রোববার (২৬ ডিসেম্বর) ওই এলাকায়

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন থাকায় ঘটনাটি কেউ জানতে পারেনি। নির্বাচনের পর সোমবার (২৭ ডিসেম্বর) এ ঘটনা নিয়ে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়। এলাকাবাসী ওই স্কুলছাত্রী হ’ত্যার বি’চার ও যৌ’ন নি’র্যাতনকারীদের গ্রেফ’তারের দাতিতে বিক্ষো’ভ করেন।
এ ঘটনায় ওই স্কুলছাত্রীর মা তিন যু’বক আকাশ, আরমান ও ইমনকে আ’সামি করে কটিয়াদী মডেল থানায় মা’মলা করেছেন।
ওই স্কুলছাত্রীর মা বলেন, শনিবার আমার মেয়ে স্কুলে যায় নবম

শ্রেণির ভর্তি ফরম আনতে। তখন ওই তিন বখাটে আমার মেয়ের সঙ্গে খারাপ কাজ করেলে সে সবার কাছে বিচার চেয়ে না পেয়ে লজ্জায় আত্মহ’ত্যা করে। আমি গতকাল সোমবার মা’মলা করেছি এখন পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রে’ফতার করতে পারেনি। আমি আমার মেয়ে হ’ত্যার বি’চার চাই। কটিয়াদী মডেল থানা পুলিশের ওসি (ত’দন্ত) মো. শফিকুল ইসলাম জানান, ওই স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে আত্মহ’ত্যার প্ররোচনার অ’ভিযোগে না’রী ও শি’শু

নির্যাতন দমন আইনে মা’মলা করেছেন। আ’সামিদের গ্রে’ফতারে অ’ভিযান অব্যাহত আছে। কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জান ডা. মো. মুজিবুর রহমান বলেন, কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা হা’সপাতালে ওই স্কুলছাত্রীর ভেজাইনাল সোয়াব পরীক্ষা ও ময়নাত’দন্ত করা হয়েছে। রিপোর্ট পেলে মৃ’ত্যুর সঠিক কারণ আমার নিশ্চিত করতে পারব।

About Gazi

Check Also

৩০০ গজ যাওয়ার পর দেখল ইঞ্জিন আছে বগি নেই

গাজীপুরের শ্রীপুরে স্টেশন দাঁড়ানো ঢাকা অভিমুখী বলাকা এক্সপ্রেস কমিউটার ট্রেন। যথারীতি সংকেত থেকে স্টেশন থেকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.