Breaking News
Home / বিনোদন ডেক্স / দর্শকের চোখে আমি নিজেকে খুঁজে পেয়েছি: তানজিন তিশা

দর্শকের চোখে আমি নিজেকে খুঁজে পেয়েছি: তানজিন তিশা

আমার কোনো কিছুর জন্য আফসোস হয় না, সো এটা নিয়ে আমি কখনও ভাবি না। তাই আমার কোনো অপ্রাপ্তি নেই, এ বছরের পুরোটাই আমার প্রাপ্তি। বছর শেষে চলছে হিসাব নিকাশ। সেই হিসেবে চলতি বছরে নতুন

করেন ছন্দে ফিরেছেন তানজিন তিশা। মাঝে খানিকটা বিরতি থাকলেও ফেরার পর থেকে তুমুল ব্যস্ত সময় পার করছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী। বছরান্তে হিসেবের পাতায় তার নামের সুবিচার করতে পেরেছেন। বেশ কিছু কাজ দিয়ে এ বছর হয়েছেন

প্রশংসিত, সঙ্গে আলোচিতও। প্রায় ৪৪টির নাটক প্রচারে এসেছে তার। এরমধ্যে তাকে ভালোবাসা বলে, শেষটা অন্যরকম ছিল, কায়কোবাদ, হ্যালো শুনছেন, বালক বালিকা, ছন্দপতন, সাহসিকা, অপরাজিতা কাজগুলো থেকে বেশ ভালো প্রশংসা পেয়েছেন তিশা।

তানজিন তিশার ভাষ্য, এ বছরে আমার অনেকগুলো কাজ এসেছে। আলহামদুলিল্লাহ, প্রায় প্রত্যেকটা কাজ থেকেই অনেক ভালো সাড়া পেয়েছি। করোনা মহামারী এবং কিছুটা পারিবারিক সময়ের কারণে অনেক দিন কাজ থেকে দূরে ছিলাম। তারপরও যা করতে পেরেছি এবং সাড়া পেয়েছি; তাতেই আমি খুশি।

দর্শক যখন কোন কাজ পছন্দ করে এবং সেগুলো নিয়ে প্রশংসা করে তখন বেশ ভালো লাগে। দর্শকের জন্যই তো আমরা কাজ করি, তারা যখন কাজগুলো নিয়ে পজেটিভ কথা বলে তখন সামনে আরও ভালো কিছু করতে উৎসাহ পাই। আমার একটা ভালো দিক বা গুণ হচ্ছে, আমি যদি কোনো একটা কাজ না

করতে পারি তাহলে সেটার জন্য আমার কখনও আফসোস হয় না। আমার সবসময় মনে হয় যে, যা হয় ভালো জন্যই হয়। যতটুকুই কাজ করতে পেরেছি, সেগুলো নিয়ে দর্শকের সাড়ায় আমি আসলেই অনেক খুশি এবং তৃপ্ত। যেহেতু আমি বলেছি, আমার কোনো কিছুর জন্য আফসোস হয় না, সো এটা নিয়ে

আমি কখনও ভাবি না। তাই আমার কোনো অপ্রাপ্তি নেই, এ বছরের পুরোটাই আমার প্রাপ্তি। এ বছরে আমি নতুন একজন তানজিন তিশাকে খুঁজে পেয়েছি। দর্শক কতটুকু খুঁজে পেয়েছেন সেটা তারা বলবেন কিন্তু দর্শকের চোখ দিয়ে আমি আমার নিজেকে খুঁজে পেয়েছি। আমার নিজের অস্তিত্ব, কাজের অস্তিত্ব খুঁজে পেয়েছি। সেই তিশাকে পেয়েছি যে কিনা একটা ভালো

চরিত্রে নিজের সর্বোচ্চ এফোর্ট দিয়ে উপস্থাপন করতে পারছে।
এবছরে নিজেকে নতুন করে যেমন খুঁজে পেয়েছি তেমন কাজ নিয়ে উপলব্ধিও হয়েছে। একটা বাক্যে যদি বলি, তাহলে সেটা হবে, ‘নো ওয়ান ক্যান স্টপ ইউ’। একজন শিল্পী যদি সৎ থেকে ভালোভাবে কাজ করে, অভিনয়ে নিজের পারফর্ম্যান্সের জায়গা যদি সঠিকভাবে ধরে রাখতে পারে তাহলে কেউ তাকে আটকে রাখতে পারবে না। সে তার কাজ দিয়ে বের হয়ে আসবেই এবং

ইন্ডাস্ট্রিতে আলাদা একটা জায়গা করে নেয়। এক কথায় বলতে চাই, দর্শকদের ভালো ও ভিন্ন ভিন্ন কাজ উপহার দিতে চাই। যে ধরণের চরিত্রে দর্শকরা আগে আমাকে দেখেনি, সে চরিত্রগুলোতে নতুন বছরে করতে চাই। কতটুকু পূরণ করতে পারবো জানি না তবে আশা রাখছি। মানুষ তো আশাতেই বাঁচে, দেখি কি হয়! আশা করছি, ভালোই হবে নতুন বছর। চলতি বছরে প্রচারে আসা তানজিন তিশা অভিনীত নাটকগুলো হলো- তাকে ভালোবাসা

বলে, এক মুঠো প্রেম, ক্রাইম পার্টনার, ব্যাঙের ছাতা, ব্যাংকার গার্লফ্রেন্ড, তুমি কি আমারই, শেষটা অন্যরকম ছিল, যে কোনো প্রয়োজনে কল করুন, গার্লফ্রেন্ড যখন ভাবী, পালাই পালাই, ভ্যালেন্টাইন গেইম, আই লাভ ইউ, অ্যান্টি হিরো, ঘর বন্ধু, দেখাদেখি, বিয়ে হবে কি, ফিফটি ফিফটি, ওভার এক্সপেক্টেশন, সব চরিত্র বাস্তব, কায়কোবাদ, মাতাল হাওয়া, হ্যালো শুনছেন,

পাপ্পু ওয়েডস পিংকি, শো অফ সুন্দরী, ব্রেকআপ লিস্ট আফটার ওয়েডিং, লাভ ভার্সেস ওয়ার, পিলো প্রবলেম, ফ্ল্যাটমেট ২, ব্যাক ফায়ার, ডুডল অব লাভ, বালক বালিকা, বিয়ে বন্দি, গ্রাজুয়েট হকার, অতঃপর, আফ্রিকান বউ, ছন্দপতন, এক্স যখন কলিগ, সাহসিকা, ফ্রেন্ড ভার্সেস চিটার, পেপার গার্ল, শেফালির প্রেমিকেরা, অপরাজিতা, তোমায় ভালোবাসি ও ভিতর বাহির ইত্যাদি।

About Gazi

Check Also

পরীমনির বাসা থেকে জব্দ সেই মদের বোতলে প্রায় ৯০ ভাগই পানি

পরীমনির বাসায় ঢুকলে যে কেউ প্রথম দফায় চমকে উঠতেন এক সময়। সারি সারি বিশ্বের নামিদামি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *