Home / খেলা-ধুলা / জাহানারা বিশ্বসেরা সুন্দরী ক্রিকেটারদের তালিকায় সবার উপরে

জাহানারা বিশ্বসেরা সুন্দরী ক্রিকেটারদের তালিকায় সবার উপরে

বর্তমানে শুধু অ’ভিনয় জগতে সেরা সুন্দরীদের উপস্থিতি আর ধুপে টিকছে না। এবার বিশ্বসেরা নায়িকাদের টেক্কা দিতে পারে কয়েকজন নারী ক্রিকেটারও। এদিকে বিশ্বের সেরা নায়িকাদের ট’ক্কর দিতে পারেন এমন

সুন্দরী ক্রিকেটারদের নিয়ে প্রতিবেদন করেছে ভা’রতের একটি অনলাইন পোর্টাল। কেরালার তিরুবনন্তপুরমের ‘এশিয়ানেট নিউজ’র প্রতিবেদনে বিশ্বসেরা ১২ জন সুন্দরী ক্রিকেটারের তালিকায় রয়েছেন বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক ও তারকা

ক্রিকেটার জাহানারা আলম। তাহলে চলুন একটু দেখে নেওয়া যাক- জাহানারা আলম: সেরা সুন্দরীদের এ তালিকায় সবার উপরে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক বোলিং অলরাউন্ডার জাহানারা আলম। বাংলাদেশের ওয়ানডে স্ট্যাটাস পাওয়া দলের এই সদস্য অ’পরূপ সৌন্দর্য্যের অধিকারী।

জাতীয় দলের হয়ে ৭১টি টি-টোয়েন্টি আর ৪০টি ওয়ানডে ম্যাচে অংশ নিয়ে ৯৩ উইকেট শিকার করেন ২৮ বছর বয়সী এই তারকা পেসার। লাখো তরুণ তাকে দেখে ক্রাশ খায়। স্মৃ’তি মান্দানা: ভা’রতের জাতীয় ক্রাশ হিসেবে পরিচিত স্মৃ’তি মান্দানা। ক্রিকেট

মাঠে যে কয়জন সুন্দরী নারী ক্রিকেটার হাজারও তরুণের মন জয় করে রেখেছেন তার মধ্যে অন্যতম সেরা স্মৃ’তি মান্দানা। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম সোশ্যাল মিডিয়াতেও তার ফ্যান ফলোয়ার্সের সংখ্যা আকাশছোঁয়া।
ডেন ভ্যান নাইকারক : দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে তিন ফরম্যাটে

খেলার পাশাপাশি দলের নেতৃত্ব দেন এই সুন্দরী তরুণী। ডান হাতে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি লেগ স্পিনেও বেশি পারদর্শী এই অলরাউন্ডার। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে এখনো পর্যন্ত ১টি টেস্ট ৯৯টি ওয়ানডে আর ৭৬টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ৩ হাজার ৭৬৯ রান করেন। মিগনন দুপ্রেজ : দক্ষিণ আফ্রিকার এই ডানহাতি

উইকেট’কিপার ব্যাটসওম্যান ২০১১ থেকেই ২০১৬ সাল পর্যন্ত তিন ফরম্যাটের ক্রিকে’টে জাতীয় দলকে নেতৃত্ব দেন। মাত্র ৪ বছর বয়স থেকেই ক্রিকেট খেলা শুরু মিগনন দেশের হয়ে ১৪২টি ওয়ানডে, ১০৮টি টি-টোয়েন্টি আর একটি টেস্ট ম্যাচে অংশ নিয়ে ৩টি সেঞ্চু’রি আর ২৪টি ফিফটির সাহায্যে ৫ হাজার ৪২৩ রান করেন। সানা মির: পা’কিস্তানের এই অলরাউন্ডারকে দেখলে

মডেলের মতো মনে হয়। অসাধারণ সুন্দরী সানা মির পা’কিস্তান নারী দলের সাবেক অধিনায়ক। তার নেতৃত্বে ২০১০ ও ২০১৪ সালে এশিয়ান গেমস জিতে পা’কিস্তান। সানা মির দেশের হয়ে ১২০টি ওয়ানডে আর ১০৬টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে অংশ নিয়ে ২৪০টি উইকেট শিকারের পাশাপাশি ২ হাজার ৪৩২ রান সংগ্রহ করেন। ক্রিকেট থেকে অবসরে ধারাভাষ্য পেশায় জড়িয়ে যান ৩৬ বছর ছুঁই ছুঁই সানা। সিসিলিয়া জয়াস: আয়ারল্যান্ডের নারী ক্রিকেট

দলের সদস্য ইসোবেলার জয়াজের যমজ বোন সিসিলিয়া জয়াস। তারা দুই বোনই ব্যাটসওম্যান। তাদের তিন ভাই ডমিনিক, এড গাচ আয়ারল্যান্ড পুরুষ দলের হয়ে ক্রিকেট খেলছেন। এর মধ্যে এড আবার ইংল্যান্ড টিমের হয়েও খেলেছেন। হলি ফার্লিং: ২০১৩ সালে অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলে অ’ভিষেক হয় তার।

মিডিয়াম ফাস্ট বোলার ফার্লিং ২০১৩ মহিলা বিশ্বকাপে মাত্র ৪টি ম্যাচ খেলেছিলেন। কুইন্সল্যান্ডের হয়ে মাত্র ১৪ বছর বয়সে অ’ভিষেকের মঞ্চে প্রথম তিন বলে হ্যাটট্রিক হয়েছে তার। ২০১৩ বিশ্বকাপে তাদের মহিলা ক্রিকেট দলে ফার্লিংকে দ্বাদশ সদস্য রূপেও রেখেছিল আইসিসি।

About Gazi

Check Also

অবশেষে হেইডেনকে কোরআন উপহার দেয়ার কারণ জানালেন রিজওয়ান

টি-টোয়েন্টিতে ডানহাতি ব্যাটসম্যান রিজওয়ানের অভিষেক হয় বাংলাদেশের বিপক্ষে, ২০১৫ সালে। খাইবার পাখতুনখাওয়া থেকে উঠে আসা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *