Home / আজকের খবর / অপারেশনের পর রোগীর পেটে কাঁচি : সেই ক্লিনিকের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু

অপারেশনের পর রোগীর পেটে কাঁচি : সেই ক্লিনিকের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু

মেহেরপুরের গাংনীতে অপারেশনের ১৯ বছর পর এক রোগীর পেটে কাঁচি পাওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত রাজা ক্লিনিকের নানা অনিয়ম তদন্ত শুরু করেছে জেলার সিলিভ সার্জনের কার্যালয়। রোগীর পেটে কাঁচি রাখার

ঘটনায় ৩ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. জওয়াহেরুল আনাম সিদ্দিকী। বুধবার দুপুরে তদন্ত কমিটি গঠনের তথ্য দৈনিক শিক্ষাডটকমকে নিশ্চিত করেন তিনি। এর আগে গতকাল মঙ্গলবার বিষয়টি নিয়ে

দৈনিক শিক্ষাডটকমে ‘অপারেশনের ১৯ বছর পর রোগীর পেটে মিললো কাঁচি!’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। সিভিল সার্জন বলেন, বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচার ও প্রকাশিত হওয়ার পর স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা মোতাবেক বুধবার ৩ সদস্য বিশিষ্ট

কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির সদস্যদের নাম সন্ধ্যায় জানানো হবে। কমিটি তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর গাংনীর রাজা ক্লিনিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে রোগীর পেটে কাঁচি রাখার বিষয়টি ভুল ছিলো বলে স্বীকার বলে ভুক্তভোগীর পরিবারকে

ক্ষতিপূরন দেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন অভিযুক্ত রাজা ক্লিনিকের মালিক ডা. পারভিয়াস হোসেন রাজা। এদিকে বুধবার ভুক্তভোগী রোগী বাচেনা খাতুনের পেটে থাকা কাঁচি অপারেশনের জন্য চুয়াডাঙ্গা শহরের একটি বেসরকারি ক্লিনিকিকে নেয়া হলে

ডায়াবেটিকসের মাত্রা বেশি থাকায় অপারেশন করা সম্ভব হয়নি। তবে ঐ ক্লিনিকের চিকিৎসক জানিয়েছেন ডায়াবেটিকসের মাত্রা কম হলে অপারেশন করে পেট থেকে কাঁচি বের করা হবে।
বাচেনা খাতুনের প্রতিবেশীরা এ ঘটনায় গাংনীর রাজা ক্লিনিকের

মালিক ডা. পারভিয়াস হোসেন রাজার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। গাংনীর রাজা ক্লিনিকে পিত্তথলির পাথর অপারেশনের দীর্ঘ ১৯ বছর পর চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার নওদা হাপানিয়া গ্রামের আব্দুল হামিদের স্ত্রী বাচেনা খাতুনের পেটে কাঁচি পাওয়া গেছে। গত রোববার রাজশাহী মেডিকেল কলেজের

নিউরোমেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. রেজা নাসিমের কাছে চিকিৎসা নিয়ে গেলে তার পরামর্শে এক্স-রে করানো হয়। এক্স-রে রিপোর্টে পেটের মধ্যে ৪ থেকে ৫ ইঞ্চির একটি কাঁচির সন্ধান মেলে। এ নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যর সৃষ্টি হয়েছে।

About Gazi

Check Also

কক্সবাজার থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে পর্যটকরা, হোটেলে ৫০ শতাংশ রুম খালি

সাম্প্রতিক সময়ে পর্যটক নারী ও স্কুলছাত্রী ধর্ষণের ঘটনাসহ খাবারের দাম বৃদ্ধির নেতিবাচক প্রভাবে কক্সবাজারে কাঙ্খিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *