Home / আলোচিত বাংলাদেশ / ডা. মুরাদ বাসায় ফিরলেই ফোন দিতে হবে থানায়

ডা. মুরাদ বাসায় ফিরলেই ফোন দিতে হবে থানায়

আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে নির্যাতন ও হত্যার হুমকি প্রদানসহ বিভিন্ন অভিযোগে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন তার স্ত্রী ডা. জাহানারা এহসান।

হুমকি-ধামকির অভিযোগ এনে স্ত্রী ডা. জাহানারার দায়ের করা সাধারণ ডায়েরির (জিডি) পর সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের বাসার আশেপাশে পুলিশের টহল বাড়ানো হয়েছে। এমনকি মুরাদ বাসায় ফিরলেই পুলিশকে ফোন দেওয়ার

অনুরোধ জানানো হয়েছে। আজ শনিবার ধানমন্ডি থানার ওসি মো. ইকরাম আলী গণমাধ্যমকে এমনটাই জানিয়েছেন। তিনি জানান, জিডির পর আমরা মুরাদ হাসানের স্ত্রী-সন্তানদের নিরাপত্তায় সার্বক্ষণিক নজর রাখছে পুলিশ। তাদের বাসার

আশপাশে পুলিশের টহল বাড়ানো হয়েছে। আমরা ওনার (ডা. জাহানারা এহসান) সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছি।
উনি সমস্যা বোধ করলে বা নিজেকে নিরাপত্তাহীন মনে করলে আমাদের (থানা) জানাবেন, আমরা সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেবো।

জিডির তদন্তভার দেওয়া হয়েছে ধানমন্ডি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাজিব হাসানকে। এর আগে, বৃহস্পতিবার দুপুরে ডা. জাহানারা ফোন করে পুলিশকে জানান, তাকে মারধর করা হচ্ছে। এমনকি প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। পরে ৯৯৯ থেকে বিষয়টি

জানানো হয় ধানমন্ডি থানা পুলিশকে। এর পরই পুলিশের একটি টিম ডা. মুরাদের বাসায় যায়। পুলিশ যাওয়ার পর সন্ধ্যায় লিখিত অভিযোগ করার জন্য মুরাদের স্ত্রী থানায় আসেন বলে জানান ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ধানমন্ডি জোনের অতিরিক্ত

উপ-কমিশনার (এডিসি) ফয়জুর রহমান। এ ব্যাপারে ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকরাম আলী মিয়া বলেন, ৯৯৯ থেকে কল পেয়ে সাবেক প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের ১৫ নম্বর সড়কের বাসায় পুলিশ পাঠানো হয়।

স্বামীর বিরুদ্ধে নির্যাতন ও প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ এনেছেন ডা. জাহানারা। এরপর তিনি তার স্বামী ডা. মুরাদের বিরুদ্ধে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ এনে একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

About Gazi

Check Also

অনির্দিষ্টকালের জন্য ঢাকা-ময়মনসিংহ সড়কে গণপরিবহন বন্ধ

এবার গাজীপুরের সালনা থেকে টঙ্গী পর্যন্ত ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে ধীরগতির উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের কারণে ময়মনসিংহ অঞ্চলে আগামীকাল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *